রবিবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২১

শিরোনাম

প্রকাশ : 2020-12-28

মুজিববর্ষে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম জহিরের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

মুজিব বর্ষ উপলক্ষে পটিয়ার ১৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন করছেন কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম চৌধুরী  জহির ও তার বড় ভাই কবির।

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে পটিয়ার ১৬ টি শিক্ষা প্রতিষ্টানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল স্থাপনের ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগ নিয়েছেন সমাজসেবক ও পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আহমেদ কবির চৌধুরী ও তার ছোট ভাই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মো: তৌহিদুল ইসলাম চৌধুরী জহির।

উপজেলার হুলাইন সালেহ নূর ডিগ্রী কলেজ, ধলঘাট স্কুল এন্ড কলেজ, মোজাফরাবাদ কলেজ, খলিল মীর ডিগ্রী কলেজ, শোভনদন্ডী ডিগ্রী কলেজ, লাখেরা উচ্চ বিদ্যালয়, আবদুস সোবহান রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়, চরকানাই উচ্চ বিদ্যালয়, আরফা করিম উচ্চ বিদ্যালয়, হাবিলাসদ্বীপ উচ্চ বিদ্যালয়, কেলিশহর উচ্চ বিদ্যালয়, রতনপুর উচ্চ বিদ্যালয়, কুসুমপুরা উচ্চ বিদ্যালয়, বাডৈইকারা উচ্চ বিদ্যালয়, হাইদগাঁও উচ্চ বিদ্যালয় ও করল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। এই ১৬ টি প্রতিষ্টানে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপনের কাজ প্রায় শেষের দিকে।

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন প্রসঙ্গে আহম্মদ কবির চৌধুরীর সাথে কথা বললে তিনি জানান, মুজিব বর্ষ উপলক্ষে আমাদের থেকে পটিয়ার জন্য কিছু একটা করতে চাচ্ছিলাম। এই জন্য মাননীয় হুইপ মহোদয়ের পরামর্শ চাইলে তিনি আমাকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপনের পরামর্শ দেন। উনার পরামর্শ মোতাবেক আমি ম্যুরাল স্থাপনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি।

তার ছোট ভাই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জহির বলেন, বর্তমানে আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলেও উগ্র মৌলবাদী গোষ্টি ধর্মের নামে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য/ প্রতিকৃতির বিরোধীতা শুরু করেছে। তাদের এই অপচেষ্টার বিরুদ্ধে আমাদের পরিবারের এটি ক্ষুদ্র প্রয়াস মাত্র। নতুন প্রজন্ম বঙ্গবন্ধুকে জানুক, বঙ্গবন্ধুকে ভালোবাসুক সেই উদ্দেশ্যেই আমরা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ইতিমধ্যে আমরা হুইপ মহোদয়ের পরামর্শ মোতাবেক শিক্ষাপ্রতিষ্টান প্রধান ও পরিচালনা পর্ষদের সাথে কথা বলে ম্যুরাল স্থাপনের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে নিয়ে এসেছি। এ কাজটি করতে পেরে আমরা সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

সর্বশেষ সংবাদ

সমগ্র বাংলা পাতার আরো খবর