রবিবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২১

শিরোনাম

প্রকাশ : 2020-12-07

ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের বিক্ষোভ মিছিল।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ চট্টগ্রাম মহানগর শাখার উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর ভাষ্কর্য ভাঙার পতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল শেষে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশ সাবেক ছাত্রনেতা মহানগর যুবলীগ নেতা দিদারুল আলম দিদারের সভাপতিত্বে সাবেক ছাত্রনেতা ও মহানগর যুবলীগ নেতা সুমন দেবনাথের পরিচালনায় প্রেস ক্লাব চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য আবদুল মান্নান ফেরদৌস, মহানগর যুবলীগ সদস্য ও সাবেক কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, সাবেক ছাত্রনেতা জহির উদ্দিন মােহাম্মদ বাবর, মীর আবদুর রহমান মামুন, মহানগর যুবলীগ সদস্য আবদুর রহিম, লিটন রায় চৌধুরী, সাবেক ছাত্রনেতা গিয়াস উদ্দিন, ওয়াহিদুল আলম শিমুল, মহানগর যুবলীগ সদস্য জাবেদুল আলম সুমন, সাখাওয়াত হােসেন সাকু, খােরশেদ আলম রহমান, নঈম উদ্দিন খান, তানভীর আহমেদ রিংকু, সাবেক ছাত্রনেতা এড, মাহবুবুব উদ্দিন, তাজ উদ্দিন রিজভী, মো. সাইফুদ্দিন, এম.এ মান্নান শিমুল, মাে. ফারুক চৌধুরী, জসিম উদ্দিন মিঠুন, আহমেদ নুর, মাকসুদুল আলম, মাসুদ আকবরী এড. মাে. কায়সার, ইসমাইল হোসেন, এস,এম নাছির উদ্দিন, ইশতিহার উদ্দিন পারভেজ, ফজলে হাসান, সাহেদ হােসেন টিটু, সাহেদ, লােকমান হােসেন, সুমন চৌধুরী, হেলাল উদ্দিন, আবু তাহের, শরফরাজ নেওয়াজ খান, জাহাঙ্গীর আলম, রিদোয়ান ফারুক, আতিকুর রহমান , আবু সুফিয়ান, আবদুল কাদের, হেলাল উদ্দিন, সাহেদ মিজান, ফিরােজ খান, আতিকুল ইসলাম মাসুম, আলমগীর টিপু, ফরহাদ হােসেন ফরহান, হারুন অর রশীদ, কামরুজ্জামন, শফিকুর রহমান তাপস, শহিদুল আলম মিন্টু, আরিফ আলী রাজন, শেখ নাসির উদ্দিন আরজু, মঞ্জুরুল ইসলাম, মাে. জাহাঙ্গীর হােসেন, ইকবাল হােসেন জুয়েল, ডা, বাবর চৌধুরী বাবু, এড. টিপুশীল জয়দেব, আমিনুল নিজামী রিফাত, এড. ওসমান উদ্দিন, এড. শান্তনু রায়, হাবিবুর রহমান, শফি উদ্দিন বাপ্পী, আলাউদ্দিন আলো, মনির হােসেন, আলােড়ন বিশ্বাস ফ্লাওয়ার, তানভীর হােসেন শাওন, আবদুল শুক্কুর, আখতারুজ্জামান, রিপন বিশ্বাস, নাঈম উদ্দিন, ইমন খান, মে, ফয়সাল, মাে. কায়সার প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এখনাে দলের কর্মীরা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। বাড়াবাড়ি করলে যুবলীগের কর্মীরা বসে থাকবে না। জাতির পিতার প্রতিকৃতি প্রদর্শন ও সংরক্ষণ সাংবিধানিকভাবেই বিধিবদ্ধ বিষয়। তাই বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের অবমাননা প্রকারন্তরে সংবিধানের অবমাননা। এতে যারা জড়িত সেই অপরাধীদের শাস্তি পেতেই হবে। কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের অবমনাননা ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ বলে অভিহিত করে নেতৃবৃন্দরা আরাে বলেন, ইতিহাসের মীমাংসিত বিষয় নিয়ে একটি উগ্র সাম্প্রদায়িক গােষ্ঠী দেশব্যাপি ধর্মীয় বিভেদ সৃষ্টির অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। দেশ ও জাতির শ্রেষ্ঠ অর্জন স্বাধীনতার স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যের অবমাননা দেশের চেতনার মর্মমূলে আঘাত হেনেছে। দেশের সাধারণ মানুষ এতে ক্ষুব্ধ। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ গায়ে পড়ে আক্রমন করে না। তবে আক্রমনের শিকার হলে প্রতিরােধ গড়ে তুলতে এক বিন্দুও পিছপা হয় না। নেতৃবৃন্দ হুশিয়ারী উচচারণ করে বলেন, ধৈর্যের বাঁধ ভেঙ্গে দেবেন না। কোন নির্দিষ্ট গোত্র বা সম্প্রদায়ের স্বার্থের কাছে স্বাধীনতা জিম্মি হতে দেবেন না। মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সকল শক্তিকে সম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান এ দোষীদের শাস্তি দাবি করে।

সর্বশেষ সংবাদ

রাজনীতি পাতার আরো খবর