সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০

প্রকাশ : 2020-10-23

বহুল প্রতিক্ষিতো এল ক্ল্যাসিকো শনিবার

মৌসুমের প্রথম এল ক্ল্যাসিকোতে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ। লিগে শেষ ম্যাচে হারলেও, চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বড় জয় পাওয়ায় আত্মবিশ্বাসী স্বাগতিক কাতালানরা। আর টানা দুই হারে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে মাদ্রিদিস্তারা। ক্যাম্প ন্যু'তে ম্যাচটা শুরু হবে শনিবার রাত ৮টায়। 

উপমহাদেশে লা-লিগার দর্শকরা ম্যাচ দেখেন ফেসবুক লাইভে। তাই টিভির রিমোট কন্ট্রোলের ওপর চাপ কমেছে। তবে রাত ৮টায় বাড়তি চাপে থাকবে এ অঞ্চলের অন্তর্জালে। কারণ মৌসুমের প্রথম এল ক্ল্যাসিকোটা মিস করতে চাইবেন না ফুটবলপ্রেমীরা। 

স্প্যানিশ ধ্রুপদী লড়াইয়ের আগে চোখ বুলানো যাক পরিসংখ্যানে। ইতিহাসে ২৪৪ বার প্রতিযোগিতামূলক খেলায় মুখোমুখি হয়েছে দু'দল। ৫২ বার অমীমাংসীত ছিলো ম্যাচ। নিক্তিটাও নেই কারও পক্ষে। বার্সা-রিয়াল উভয়ের জয়ের সংখ্যাও সমান ৯৬টি করে। 

অবশ্য মঞ্চটা যেহেতু লা-লিগা, তাই ইঞ্চিখানেক এগিয়ে মাদ্রিদিস্তানরা। স্প্যানিশ টপ ফ্লাইটে ১৮১ দেখায় কাতালানদের ৭২ জয়ের বিপরীতে একটা জয় বেশি আছে লসব্লাঙ্কোদের। যদিও সেই স্বস্তিটা উবে যেতে পারে একজন লিওনেল মেসির সামনে। কারণ এল ক্লাসিকোয় সর্বোচ্চ ২৬ বার বল জালবন্দী করার রেকর্ডটা এসেছে এই আর্জেন্টাইনের বুট থেকে।  

চলতি মৌসুমে ৫ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের তিন নম্বরে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। যদিও বার্নাব্যুতে মার্চে সবশেষ দেখায় ২-০ গোলের জয় তুলেছিলো মাদ্রিদ জায়ান্টরা, তারপরও খুব একটা স্বস্তিতে নেই জিদান। কারণটা পরিষ্কার। লা-লিগায় শেষ ম্যাচে অখ্যাত কাদিজের কাছে হেরে এসেছে জিদান বাহিনী। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ওপেনারে স্বাগতিক হয়েও, ৩-২ গোলের ব্যবধানে হেরেছে শাখতার দোনেস্কের কাছে। 

জিজুর চিন্তা আরও বাড়বে দলের ইনজুরি তালিকায় চোখ রাখলে। হ্যাজার্ড-কারভাহালসহ মোট ৫ সদস্য নিশ্চিতভাবেই খেলতে পারছেননা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটা। ফিরতে পারেন কাপ্তান রামোস। মদ্রিচ-ক্যাসিমিরোদের দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে পুরো সময়টা।      

ইনজুরির সমস্যা আছে কাতালান শিবিরেও। রক্ষণে উমতিতি নেই। গোলপোস্টেও নাম্বার ওয়ান স্টেগান ভুগছেন হাঁটুর ইনজুরিতে। তবে পিকে-লেংলেট-ডি ইয়ংরা ভালো বোঝাপড়া দেখিয়েছেন শেষ ম্যাচে। ফেরেঙ্ক ভারোসের বিপক্ষে ৫-১ ব্যবধানের জয়ে মেসি-আনসু ফাতি-কৌতিনিয়ো-পেদ্রি আর দেম্বেলে, ৫ জনই নাম তুলেছেন স্কোর শিটে। আত্মবিশ্বাসটা তাই তুঙ্গে বার্সেলোনার। মৌসুমে ৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের নয়ে থাকলেও ম্যাচ খেলেছে ৪টা। 

পরিসংখ্যানে সবমিলিয়ে আবারও মাদ্রিদের এগিয়ে যাওয়া নাকি লা-লিগায় কাঁধে কাঁধ মেলাবে বার্সা, তার অপেক্ষায় প্রহর গুণছে সমর্থকরা।