সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০
ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ-মিথুন মল্লিক।

ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ। তবে এই বছরের ঈদ আমাদের জীবনে একটু ব্যতিক্রম। কোভিট-১৯ এ এই ক্রান্তিলগ্নে সারা বিশ্ববাসী এক ঝুঁকিপূর্ণ সময় পার করছে। এই ক্রান্তিলগ্নে ঈদ নিয়ে এসেছে আনন্দের সময়।

যে সকল ভাই-বোনেরা করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন, আমি তাঁদের আত্মার শান্তি কামনা করি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। আর যারা অসুস্থ অবস্থায় আছেন তাদের রোগমুক্তির জন্য পরম করুনাময়ের নিকট প্রার্থনা করি।

সামাজিক দূরত্বের সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যের মেলাবন্ধনে নিশ্চিত হোক আগামীর নিরাপত্তা ও করোনা মুক্ত নতুন সূর্যের প্রত্যাশা….
আবার আমাদের দেখা হবে একটি সুস্হ পৃথিবীতে।

​​​​ মিথুন মল্লিক, 
সাবেক সদস্য, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। 
সহ-সভাপতি, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগ।

সবাই ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন-রবিউল ওহাব কমল

প্রতিবছর ঈদ আসে আমাদের জীবনে আনন্দ আর সীমাহীন প্রেম প্রীতি ও কল্যাণের বার্তা নিয়ে।  তবে এবারে করোনা মহামারী এবং ঘূর্ণিঝড় আমফানের প্রকোপে চিত্রটা অবশ্যই অনেকটা আলাদা।
এই দুর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবেলায়  মাননীয় প্রধানমন্ত্রী  জননেত্রী শেখহাসিনার নেতৃত্বে  সকল কালিমা আর কলুষতাকে ধুয়ে মুছে হিংসা বিদ্বেষ ভুলে পরস্পর প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ হবো৷
সবাই ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন, সুস্থ থাকুন,  পরিবারের সদস্যদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করুন। 
পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা রইল।

রবিউল ওহাব কোমল।
ছাত্রপ্রতিনিধি, 
সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ ছাত্রলীগ, চট্রগ্রাম।

ঈদ কাটুক সকলের নিরাপদেঃ প্রিয়ম বিশ্বাস

ঈদ মানে খুশি,ঈদ মানে আনন্দ,ঈদ মানে সবাইকে একসাথে নিয়ে উৎসবে মাতা। কিন্তু,এইবারের ঈদটা একটু অন্য রকম।করোনা মহামারিতে গৃহবন্দি দিন পার করছি সকলে,দল বেঁধে একসাথে ঘুরে বেড়ানো আর সকলের বাড়ি গিয়ে কুশল বিনিময় ছাড়াই পালন করতে হবে এবারের ঈদ।

নিজের পরিবার-পরিজন এর স্বার্থে গণ-সমাবেশ এড়িয়ে চলুন, বাসায় পরিবারের সাথেই উৎসব পালন করুন। সকলে সুস্থ ও নিরাপদে থাকুন। সবাইকে জানাই ঈদ-উল-ফিতর এর শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক।

 

প্রিয়ম বিশ্বাস 

উপ- গণ শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ , চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা। 

দপ্তর  সম্পাদক,  কপাট ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ।        

ঈদ নিয়ে এল সংযম ও দায়বদ্ধতা-রিয়াজ হায়দার চৌধুরী।

টানা সংযমের পুরস্কার হল ঈদের আনন্দ । কিন্তু এবার এই আনন্দ যেন প্রাণহীন ! বিশ্বজুড়ে এক বদলে যাওয়া ঈদ এলো ।‌ সামাজিকতায় অভ্যস্ত জাতিগোষ্ঠী হিসেবে আমাদের জন্য ঈদ আনন্দ সামাজিক দুরত্ব বা ব্যবধানে নয়, সার্বজনীনতাই চিরায়ত রূপ। সেটা ঈদের মত আসে পুজোপার্বনেও ; বাঙালির সব প্রাণের উৎসবেই। 

কিন্তু  ধারণারও বাইরে এবারের ঈদ আবহ।‌ এযাবতকালের সবচেয়ে সংযমই যেন নিয়ে এলো আনন্দীয় ঈদ। নিয়ে এলো সৃষ্টির সেরা জীব হিসেবে আমাদের দায়বদ্ধতাও। তাই এবার ঈদ আনন্দ কিংবা আমাদের নিজেদের জৌলুস যেন পুরোটাই  বিলিয়ে দিতে পারি নিঃস্ব রিক্ত দুস্হ কর্মহারা অন্নহীন বিপন্ন মানুষের মাঝে । ঘরে থেকেই থাকতে হবে তাঁদের মাঝে। থাকতে হবে নিরাপদ, সুরক্ষা দিতে হবে অন্যদেরও:
আপনজন, পরিবার, সমাজ-রাষ্ট্রকে । 
তাই বলতেই হয়- 
ঈদ মানে নয় রেলের হুইসেল,  নয় স্টিমারের ভোঁ ,
ঈদ মানে এবার ঘরের আনন্দ মন প্লাবনের কাব্য ।‌ 
ঈদ মোবারক.
সুন্দর সুশোভিত সুরক্ষিত জীবন কামনায়,
রিয়াজ হায়দার চৌধুরী,
 সহ-সভাপতি,
বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন।
সাবেক সাধারণ সম্পাদক,
চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন।

পরিবারের সাথেই ঈদ আনন্দ-এ কে এম জাবেদুল আলম

পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের শিক্ষা উপলব্ধি করে ভ্রাতৃত্ববোধের প্রেরণায় উদ্দীপ্ত হয়ে সমাজের দরিদ্র, অবহেলিত ও বঞ্চিত মানুষের প্রতি সাহায্য ও সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এ কে এম জাবেদুল আলম সুমন। 

শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি এক বার্তায় বলেছেন-বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারীর আঘাতে এবছর হয়তো পূর্বের মত সবাইকে নিয়ে ঈদের আনন্দ ও উৎসব করা সম্ভব হবে না।করোনা মহামারিতে এখন সারাবিশ্বের মানুষের মাঝে বিরাজ করছে আতঙ্ক।আমি আশা করব এই কঠিন সময়েও যেন সবাই মুখে হাসি নিয়ে ঈদ উদযাপন করে। ঘরে থেকেই ঈদের আন্দন করুন। এখন সময়টা এমন যে ভিন্নভাবে দেখার সুযোগ নেই কারও।তবে এটাই প্রার্থনা থাকবে দ্রুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাক। আবারও সবাইকে জানাই ঈদ মোবারক।

এ কে এম জাবেদুল আলম সুমন,
সি ই ও,  পান্থজন নিউজ অনলাইন 
সদস্য,  চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী যুবলীগ।

ক্রান্তিকালীন সময়ে এলো খুশির ঈদঃ বকুল

চাঁদ দেখার পরেই শুরু হয় প্রিয়জনদের মধ্যে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়। রমজানের শেষে এই ঈদ আসে আনন্দের বার্তা নিয়ে, সারা বিশ্বের মুসলমানরা এটি খুশির উৎসব হিসেবে পালন করে থাকেন।

প্রতিবছরই, রমজান মাস এবং ঈদ উৎসবের জন্য জোরকদমে প্রস্তুতি চলে। সারাবছর ধরে ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা এই পবিত্র মাস ও পবিত্র দিনের জন্যই অপেক্ষা করে থাকে। কিন্তু এই বছরটা একটু অন্যরকম। বর্তমানে গোটা পৃথিবী কোভিড-১৯ মহামারি মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে। গোটা বিশ্বে করোনা ভাইরাসের কারণে পরিস্থিতি স্বাভাবিক নয়। সমগ্র বিশ্বে বহু দেশেই চলছে লকডাউন।

যদিও এই বছর ঈদ উপলক্ষে অতীতের মতোন উজ্জ্বলতা নেই, তবুও মানুষের মধ্যে এই উৎসবটি নিয়ে এতটুকু উৎসাহ কমেনি। আপনি সামাজিক দূরত্ব অনুসরণ করে এই দিনটি উৎযাপন করুণ পরিবার পরিজনের সাথে।

সকলকে জানায় ঈদ মোবারক

সাখাওয়াত হোসেন বকুল
উপ- বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়ক সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ।
সাবেক সহ-সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের হবেন না, ঈদ মোবারকঃ ইমরান খাঁন

পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের শিক্ষা উপলব্ধি করে ভ্রাতৃত্ববোধের প্রেরণায় উদ্দীপ্ত হয়ে সমাজের দরিদ্র, অবহেলিত ও বঞ্চিত মানুষের প্রতি সাহায্য ও সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইমরান খাঁন।

শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি এক বার্তায় বলেছেন- আত্মত্যাগের মহিমায় পরিশুদ্ধ হওয়ার মহোৎসব ঈদুল ফিতর, বয়ে আনুক অনাবিল শান্তি। দুর হয়ে যাক মানুষে-মানুষে বিভেদ। কিছু মুর্হুতের জন্য হলেও থমকে যাক সকল রাগ-অনুরাগ কুপমন্ডুকতা। নির্বাপিত হোক সকল আধাঁর, আলোয় আলোকময় হোক পৃথিবী। অগনন সুহৃদের প্রতি অবারিত শুভেচ্ছা। সবার উপর শান্তি বর্ষিত হোক।

ইমরান খাঁন,
ডিরেক্টর, পেডরোলো বাংলাদেশ। 
ভাইস প্রেসিডেন্ট, প্রাইম ব্যাংক  লিঃ।

সাক্ষাৎকার পাতার আরো খবর