বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১

মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে ধানমন্ডি-৩২ এ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়েছে।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) সকালে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা। পরে দলের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তারা। দলের সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরাও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। 

এরপর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, করোনা প্রতিরোধের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার পাশাপাশি সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে পরাজিত করাই সরকারের বড় চ্যালেঞ্জ।

...

কোম্পানীগঞ্জে আ. লীগের দুপক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুপক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৮জন আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে আবদুল কাদের মির্জার ফেসবুক আইডি থেকে বায়তুল মোকাররম নিয়ে উসকানিমূলক স্ট্যাটাস দেয়া হয়। 

এর জেরে বিকেলে কাদের মির্জা বিরোধী স্লোগান দিয়ে বসুরহাট পৌরসভায় ঢোকার চেষ্টা করে আওয়ামী লীগের একপক্ষ। পুলিশ বাধা দিলে উপজেলা গেটে চলে যান তারা। 

সেখানে কাদের মির্জার ছেলে তাশিক মির্জার নেতৃত্বে তার অনুসারীরা গেলে দুপক্ষের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে ৮ জন আহত হন। 

পরে রাতে বাস ভাংচুর করেন কাদের মির্জার অনুসারীরা।

...

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা নুরুল হকের মৃত্যু

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা নুরুল হক মারা গেছেন।

সোমবার দুপুরে নগরীর বেসরকারি ক্লিনিক সিএসসিআরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক।

নুরুল হকের বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

তিনি বলেন, নুরুল হক বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। সবশেষ আড়াই মাস আগে তিনি হালিশহর এলাকায় দলীয় একটি কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন।

হালিশহরের বড়পোল মোড় এলাকায় আবুল মিয়ার বাড়ির বাসিন্দা নুরুল হক এক মেয়ে ও পাঁচ ছেলের জনক।

তিনি নগর আওয়ামী লীগের প্রথম কমিটির নির্বাহী সদস্য ছিলেন। সবশেষ ২০১৩ সালের ১৪ নভেম্বর হওয়া কমিটিতে তিনি নগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য হন।

নুরুল হকের মৃত্যুতে নগর আওয়ামী লীগের এক শোক বার্তায় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, নগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য নুরুল হকের মৃত্যুতে গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল রাজনৈতিক অঙ্গণে অপূরণীয় শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে।

নগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিনও নুরুল হকের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন।

আওয়ামী লীগ নেতা শফিকুল ইসলাম ফারুক জানান, রাত আটটায় মইন্যাপাড়া বাইতুস সালাত জামে মসজিদে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে নুরুল হকের দাফন হয়েছে।

...

জিয়ার খেতাব বাতিলের অধিকার জামুকা বা সরকারের নেই: ফখরুল

 

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের অধিকার জামুকা বা সরকারের নেই।

মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) দুপুরে মানিকগঞ্জের ঘিওরে খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধা শেষে তিনি একথা বলেন।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, খেতাব বাতিল হলে, মুক্তিযুদ্ধের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করা হবে। স্বাধীনতাকে অস্বীকার করা হবে।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেন, বাংলাদেশ শুধু ভারতকে দিয়েই যাচ্ছে, কিছু আনতে পারছে না। সীমান্তে হত্যা বন্ধ হচ্ছে না। তিস্তাসহ অন্যান্য নদীর পানির হিস্যা বুঝে পাচ্ছে না। এসব সমস্যার সমাধান না হলে, দেশের মানুষ মেনে নেবে না বলেও মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল।

...

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চীনের প্রভাব আরো বাড়বে

করোনাভাইরাস ইস্যুতে চীন থেকে সরে যাওয়া বিদেশি বিনিয়োগের কিছু অংশ যাতে বাংলাদেশে আসে, সে লক্ষ্যে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, করোনা পরবর্তী সময়ে অর্থনীতির গতি-প্রকৃতিতে ব্যাপক পরিবর্তন আসছে। এ সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের, বিশেষ করে চীন থেকে বড় ধরনের বিনিয়োগ পাওয়ার আশায় রয়েছে সরকার। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এসব কারণে আগামীতে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চীনের প্রভাব আরও বাড়বে।

এদিকে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ নেওয়াসহ বিভিন্ন নীতিমালা সহজ করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। সর্বশেষ বাংলাদেশ ব্যাংক বিদেশি বিনিয়োগকারীদের বৈদেশিক মুদ্রার (এফসি) অ্যাকাউন্ট খোলার সুযোগ করে দিয়েছে। ফলে এখন থেকে বাংলাদেশের কোনও প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করা কোনও বিদেশি বিনিয়োগকারী তার লভ্যাংশের অর্থ এফসি অ্যাকাউন্টে রাখতে পারবেন। যেকোনও সময় অ্যাকাউন্ট থেকে অর্থ নিজ দেশে বা অন্য দেশে নিয়ে যেতে পারবেন। আবার বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলো চাইলে লভ্যাংশের অর্থ বাংলাদেশে বিনিয়োগও করতে পারবে। বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণ করতে নানা উদ্যোগের অংশ হিসেবে এই শিথিলতা এনেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। মঙ্গলবার (৭ জুলাই) এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করে ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

যদিও এর আগে একই বিষয়ে নানা ধরনের বিধিনিষেধ ছিল। মনে করা হচ্ছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের এই সিদ্ধান্তের ফলে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ার ক্ষেত্রে সহায়ক হবে। বিশেষ করে চীনা বিনিয়োগ বাড়ার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রাখবে।
এ প্রসঙ্গে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক আহসান মনসুর বলেন, ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের এই সিদ্ধান্তের ফলে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চীনে দাপট আরও বাড়বে। কারণ, সারা পৃথিবীর মধ্যে সম্পদশালী দেশ এখন চীন। এছাড়া, সারা পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগও চীনেরই। ফলে করোনা ইস্যুতে চীন থেকে কেউ তাদের বিনিয়োগ সরিয়ে নিলেও চীনের অর্থনীতিতে এর কোনও প্রভাব পড়বে না। তবে বাংলাদেশ ব্যাংক যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাতে বাংলাদেশে চীনের বিনিয়োগ বাড়বে।’

তিনি উল্লেখ করেন, অন্যান্য নতুন দেশ শুধু বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার দেখে এই দেশে বিনিয়োগ বাড়াবে না। কিন্তু চীনা প্রতিষ্ঠানগুলো চাইলে লভ্যাংশের অর্থ বাংলাদেশে বিনিয়োগও করতে পারবে। তিনি মনে করেন, বিনিয়োগ বাড়াতে হলে অনেক কিছু সহজ করতে হবে। যেমন, বিদেশি বিনিয়োগের জন্য এখানে বিনামূল্যে জমি দেওয়া, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম কমাতে হবে। রাস্তাঘাট ভালো করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘দেশে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে তিনটি দেশের দিকে নজর দিতে হবে। এই দেশ তিনটি হলো— প্রথমত চীন, এছাড়া জাপান ও কোরিয়া।’

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চীনের প্রভাব এখন সবচেয়ে বেশি। ২০১৬ সালের পর থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ বাড়িয়েছে দেশটি। ফলে এই মুহূর্তে চীনই বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ বিনিয়োগকারী রাষ্ট্র।

এখন পর্যন্ত চীন থেকে বাংলাদেশে বিনিয়োগ এসেছে (স্টক বিনিয়োগ) ২ হাজার ৯০৭ মিলিয়ন ডলার। শুধু ২০১৯ সালে চীন থেকে নতুন বিনিয়োগ এসেছে এক হাজার ৪০৮ মিলিয়ন ডলার।

সরকারি হিসাব অনুযায়ী, ২০১৮ সালে বাংলাদেশে সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগ ছিল ৩৬০ কোটি ডলার। এরমধ্যে চীনই করেছে বেশি। গত বছর চীনের পর নেদারল্যান্ড ছিল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বিনিয়োগকারী রাষ্ট্র। দেশটি এখানে বিনিয়োগ করেছে ৬৯ কোটি ২০ লাখ ডলার। ৩৭ কোটি ১০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্রিটেন। যুক্তরাষ্ট্রের স্থান চতুর্থ। যদিও একসময় যুক্তরাষ্ট্রই ছিল শীর্ষে। ২০১৮ সালে ১৭ কোটি ৪০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করে চতুর্থ স্থানে ছিল যুক্তরাষ্ট্র। ১৯৮০ সালের পর থেকে বাংলাদেশে সরাসরি বিনিয়োগের সুযোগ সৃষ্টি হয়। ১৯৯৫ সালে মোবাইল টেলিযোগাযোগ খাতে বৈদেশিক বিনিয়োগে অনুমোদন দেয় বাংলাদেশ। এরপরই নরওয়ের টেলিনর ও মিসরের ওরাশকমের মতো টেলিকম জায়ান্ট বাংলাদেশে প্রবেশ করে।

জানা গেছে, মহামারি করোনার সংক্রমণ শুরুর পর চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে চীনে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ ১০ শতাংশ কমেছে। চীন থেকে সরতে চাওয়া বিদেশিদের আকর্ষণের জন্য ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, ভারত, শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন দেশ নানা রকম চেষ্টা চালাচ্ছে। বাংলাদেশও সেটা করছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি ডিপার্টমেন্টের মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ খুরশিদ ওয়াহাব বলেন, ‘চীন থেকে সরে যাওয়া বিদেশি বিনিয়োগ বাংলাদেশে আসার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘গত ২৬ জুন অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে পাঠানো এক চিঠিতে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা যাতে অনায়াসে তাদের বিনিয়োগের অর্থ-লভ্যাংশ নিজ দেশ বা অন্যত্র নিয়ে যেতে পারেন, সে ব্যাপারে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংককে অনুরোধ করা হয়েছিল।’

সেই অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতেই বিদেশি বিনিয়োগকারীদের এফসি অ্যাকাউন্ট খোলার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এতে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে উৎসাহিত হবে বলে মনে করেন মোহাম্মদ খুরশিদ ওয়াহাব। তিনি উল্লেখ করেন, এতদিন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা তাদের লভ্যাংশের অর্থ তাদের নিজ দেশে নিয়ে যেতে পারতেন। এখন এফসি অ্যাকাউন্ট খুলে ওই অ্যাকাউন্টে লভ্যাংশের অর্থ রাখতে পারবেন। আবার যখন খুশি বিনিয়োগকারীরা তার লভ্যাংশের অর্থ বাংলাদেশে যেকোনও প্রতিষ্ঠানে পুনঃবিনিয়োগ করতে পারবেন।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য দেশে ১০০ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে ‍তুলছে সরকার। এছাড়া বিদ্যমান ফরেন এক্সচেঞ্জ রেগুলেশন অ্যাক্ট যুগোপযোগী করার জন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি একটি খসড়া তৈরি করেছে।

বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে এই আইনে আর কী কী পরিবর্তন আনা দরকার, সেগুলো অন্তর্ভুক্ত করে দ্রুততম সময়ে আইনটি পাস করার ওপর জোর দেওয়া হয় চিঠিতে। বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধির যে সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে, তা কাজে লাগাতে ব্যাংকিং কার্যক্রম পর্যালোচনা করে বিদ্যমান আইনগত, নীতিগত এবং পদ্ধতিগত প্রতিবন্ধকতাগুলো চিহ্নিত করে তা দূর করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধও করে অর্থ মন্ত্রণালয়।

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, সদ্য সমাপ্ত অর্থবছরের ১১ মাসে (জুলাই-মে) বিভিন্ন খাতে সব মিলিয়ে ৩৭২ কোটি ৮০ লাখ ডলার এফডিআই বা সরাসরি বিনিয়োগ এসেছে, যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ১৪ শতাংশ কম।

পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য বলছে, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে চীন থেকে আমদানি হয়েছে ১৩ হাজার ৬৩৮ মিলিয়ন ডলারের পণ্য। একই সময়ে সর্বোচ্চ দ্বিতীয় আমদানিকারক দেশ ভারত থেকে ৭ হাজার ৬৪৭ মিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি হয়েছে। অর্থাৎ ভারতের চেয়ে চীন থেকে প্রায় দ্বিগুণ পণ্য আমদানি করেছে। এছাড়া চীনে পণ্য রফতানি হয়েছে ৭৪৭ দশমিক ৭ মিলিয়ন ডলারের। এদিকে বাংলাদেশের রফতানি বাড়াতে সম্প্রতি চীন বাংলাদেশকে বাণিজ্যিক সুবিধা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে চীনের বাজারে আরও ৫ হাজার ১৬১ পণ্যের ৯৭ শতাংশ শুল্কমুক্ত সুবিধা পেয়েছে বাংলাদেশ। চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে বাংলাদেশ এ সুবিধা পাচ্ছে। আর এটি বলবৎ থাকবে ২০২৪ সাল পর্যন্ত। অবশ্য বাংলাদেশ ইতোমধ্যে চীন থেকে এপিটির আওতায় ৩ হাজার ৯৫টি পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা পেয়ে আসছিল। ওই সুবিধার বাইরে ৯৭ শতাংশ শুল্কমুক্ত সুবিধা দেওয়া হলো। এতে শুল্কমুক্ত সুবিধার আওতায় চীনের বাজারে বাংলাদেশের ৮ হাজার ২৫৬টি পণ্য শুল্কমুক্ত সুবিধার আওতায় এসেছে।

সরকারি তথ্য বলছে, এত কিছুর পরও চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য ঘাটতি রয়েছে ১২ হাজার ৮৯১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

...

সাকিব আল হাসানের ৩৪তম জন্মদিন আজ

আজ সাকিব আল হাসানের ৩৪তম জন্মদিন। ১৯৮৭ সালের এই দিনে মাগুরায় জন্মগ্রহণ করেন বাংলাদেশের আইকন। বিকেএসপির সেই টিনেজার এখন বিশ্ব ক্রিকেটে জনপ্রিয় মুখ। কোটি ভক্তের ভালোবাসায় সিক্ত দেশের ক্রিকেটের পোস্টার বয়।

বাংলাদেশের ক্রিকেটের পোস্টার বয় থেকে এখন তিনি দেশের ক্রীড়াঙ্গনের সবচেয়ে বড় তারকা। সাকিব আল হাসান। যে নামটির সাথে জড়িয়ে কোটি মানুষের আবেগ, লাল-সবুজের গৌরব। বাংলাদেশের প্রাণ সাকিব আল হাসানের আজ ৩৪তম জন্মদিন।

বিকেএসপিতে হাতেখরির পর ২০০৬এ মাত্র ১৯ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পথচলা শুরু। এরপর শুধু ছুটে চলেছেন দুর্বার। ২০১১ বিশ্বকাপে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। অধিনায়কত্বের আর্মব্যান্ড ওঠেছে টেস্ট ও টি টোয়েন্টি ফরম্যাটেও। বিশ্বের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে ৩ ফরম্যাটেই সেরা অলরাউন্ডার হয়েছেন সাকিব। তবে ২০১৯ বিশ্বকাপে ব্যাটে-বলে যা করে দেখিয়েছেন তা ছিলো অবিশ্বাস্য। রেকর্ডের পর রেকর্ড ভেঙেছেন গড়েছেনও। তাই তিনি এখন আর শুধু লাল-সবুজের নন বিশ্ব ক্রিকেটের আইকন। 

শুধু কি দেশের জার্সিতে? ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত ক্রিকেটার এ অল রাউন্ডার। আইপিএল রাঙিয়েছেন কলকাতা নাইট রাইডার্স আর সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে। খেলেছেন বিগ ব্যাশ, সিপিএলের মতো আসরগুলোতেও। 

ক্রিকেটের বাইরেও সফল সাকিব আল হাসান। বিজ্ঞাপনের মডেল থেকে উদ্যোক্তা, চ্যারিটিতেও সুনাম কুড়িয়েছেন। গড়েছেন নিজের নামে ক্রিকেট একাডেমি। ২২ গজে সবসময় সিরিয়াস, সতীর্থদের সাথে খোশমেজাজে ভিন্ন এক সাকিব। আবার স্ত্রী, সন্তানদের সাথে পুরোদস্তুর ফ্যামিলিম্যান। 

শুধু ক্রিকেটে নয় জীবনের সব ভূমিকাতেই সেরা অল রাউন্ডার আমাদের সাকিব আল হাসান। শুভ জন্মদিন সুপার সাকিব।

...

সাকিব আল হাসানের ৩৪তম জন্মদিন আজ

আজ সাকিব আল হাসানের ৩৪তম জন্মদিন। ১৯৮৭ সালের এই দিনে মাগুরায় জন্মগ্রহণ করেন বাংলাদেশের আইকন। বিকেএসপির সেই টিনেজার এখন বিশ্ব ক্রিকেটে জনপ্রিয় মুখ। কোটি ভক্তের ভালোবাসায় সিক্ত দেশের ক্রিকেটের পোস্টার বয়।

বাংলাদেশের ক্রিকেটের পোস্টার বয় থেকে এখন তিনি দেশের ক্রীড়াঙ্গনের সবচেয়ে বড় তারকা। সাকিব আল হাসান। যে নামটির সাথে জড়িয়ে কোটি মানুষের আবেগ, লাল-সবুজের গৌরব। বাংলাদেশের প্রাণ সাকিব আল হাসানের আজ ৩৪তম জন্মদিন।

বিকেএসপিতে হাতেখরির পর ২০০৬এ মাত্র ১৯ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পথচলা শুরু। এরপর শুধু ছুটে চলেছেন দুর্বার। ২০১১ বিশ্বকাপে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। অধিনায়কত্বের আর্মব্যান্ড ওঠেছে টেস্ট ও টি টোয়েন্টি ফরম্যাটেও। বিশ্বের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে ৩ ফরম্যাটেই সেরা অলরাউন্ডার হয়েছেন সাকিব। তবে ২০১৯ বিশ্বকাপে ব্যাটে-বলে যা করে দেখিয়েছেন তা ছিলো অবিশ্বাস্য। রেকর্ডের পর রেকর্ড ভেঙেছেন গড়েছেনও। তাই তিনি এখন আর শুধু লাল-সবুজের নন বিশ্ব ক্রিকেটের আইকন। 

শুধু কি দেশের জার্সিতে? ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত ক্রিকেটার এ অল রাউন্ডার। আইপিএল রাঙিয়েছেন কলকাতা নাইট রাইডার্স আর সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে। খেলেছেন বিগ ব্যাশ, সিপিএলের মতো আসরগুলোতেও। 

ক্রিকেটের বাইরেও সফল সাকিব আল হাসান। বিজ্ঞাপনের মডেল থেকে উদ্যোক্তা, চ্যারিটিতেও সুনাম কুড়িয়েছেন। গড়েছেন নিজের নামে ক্রিকেট একাডেমি। ২২ গজে সবসময় সিরিয়াস, সতীর্থদের সাথে খোশমেজাজে ভিন্ন এক সাকিব। আবার স্ত্রী, সন্তানদের সাথে পুরোদস্তুর ফ্যামিলিম্যান। 

শুধু ক্রিকেটে নয় জীবনের সব ভূমিকাতেই সেরা অল রাউন্ডার আমাদের সাকিব আল হাসান। শুভ জন্মদিন সুপার সাকিব।

...

প্রথম ওয়ানডেতে কিউই পেস তোপে পুড়ে ছাই টাইগাররা

প্রথম ওয়ানডেতে পাত্তাই পায়নি বাংলাদেশ। কিউইদের কাছে ৮ উইকেটে হেরেছে টাইগাররা। ডানেডিনে, প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৩১ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। জবাবে ২ উইকেট হারিয়ে ২১ ওভার ২ বলে জয় তুলে নেয় স্বাগতিকরা।

টস জিতে সফরকারিদের ব্যাটিংয়ে পাঠায় নিউজিল্যান্ড। স্বাগতিক পেস তোপে ধস নামে বাংলাদেশ ইনিংসে। ১৯ রানে সাজঘরে ফেরেন তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। হাল ধরতে ব্যর্থ লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিমও। লিটন ১৯ ও মুশফিক ফেরেন ২৩ রানে। মাঝে ধংসযজ্ঞে যোগ দেন স্পিনার মিচেল স্যান্টনার। তুলে নেন দুই মেহেদীকে।

একশ'র নিচে সাত উইকেট হারানো বাংলাদেশ আর প্রতিরোধ গড়তে পারেনি। সর্বোচ্চ ২৭ রান আসে মাহমুদউল্লাহ'র উইলো থেকে। ট্রেন্ট বোল্ট চার ও জিমি নিশামের শিকার দুই উইকেট।

জবাবে নিউজিল্যান্ডকে উড়ন্ত  শুরু এনে দেন মার্টিন গাপটিল-হ্যানরি নিকোলস। গড়েন ৫৪ রানের জুটি। তাসকিনের শিকার হওয়ার আগে টি টোয়েন্টি স্টাইলে ৩৮ রানের ক্যামিও ইনিংস খেলেন গাপটিল। আর ২৭ রানে ফেরেন ডেভন কনওয়ে।

...

ফাইনালে বার্সেলোনা

চলতি মৌসুমে অন্তত একটা শিরোপা জয়ের স্বপ্ন টিকিয়ে রাখলো বার্সেলোনা। জেরার্ড পিকের নাটকীয় গোলে, কোপা দেল রে'র ফাইনালে উঠেছে বার্সা। প্রথম লেগে ২-০ গোলে হারলেও, ফিরতি লেগে সেভিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে লিওনেল মেসির দল। এ নিয়ে গেলো ৭ মৌসুমে ষষ্ঠবারের মতো কোপা দেল রে'র ফাইনালের টিকিট কাটলো কাতালানরা।

ভাঙাচোরা দল। মাঠের বাইরেও কতো ইস্যু! গুছিয়ে উঠতে হিমশিম খায় বার্সেলোনা। যার জন্য খেলা, সেই ট্রফিগুলো থেকে যায় নাগালের বাইরে। কোপা দেল রে'র শিরোপার স্বপ্নটাও ধূসর হয়ে আসছিলো। কিন্তু, ক্যাম্প ন্যু'য়ে নায়কের বেশে আবির্ভূত হলেন জেরার্ড পিকে। ম্যাচের শেষ মিনিটে গল্পটা বদলে গেলো স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের স্পর্শে।

প্রথম লেগে ২-০ গোলে এগিয়ে থাকা সেভিয়ার যেকোনো মূল্যে ফাইনালে ওঠা চাই। শুরু থেকে ডি-বক্স আগলে রাখার আপ্রাণ চেষ্টায় লস পালাঙ্গানারা। আগলে রাখা ডি-বক্সে ফাটল ধরালো ডেম্বেলের বুলেট গতির শটটা। ১২ মিনিটে বার্সা এগিয়ে গেলো ১-০ গোলে। ফাইনালে যেতে আরও গোল চাই। কাতালানরা লিওনেল মেসির জাদুর অপেক্ষায়। ৩৩ মিনিটে গোললাইন থেকে বল ফিরলে আফসোসে পুড়তে হয়।

দ্বিতীয়ার্ধেও পেরোয় অনেকটা সময়। দ্বিতীয় গোলটা রয়ে যায় অদেখা। ৬৭ মিনিটে জর্ডি আলবা ফেরেন ক্রসবার কাঁপিয়ে। কাতালানদের কাঁপুনি বাড়িয়ে ৭১ মিনিটে সেভিয়ার পক্ষে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। কিন্তু, স্টেইগেনের বিশ্বস্ত গ্লাভসে আটকে যায় ওক্যাম্পোসের স্পটকিক।

বড় দলের সঙ্গে অন্যদের তফাৎটা তো এখানেই। এমন ম্যাচে সুযোগ লুফে নেয়া চাই শতভাগ। সেটা তো লোপেতেগুইয়ের দল পারলোই না, উল্টো ফার্নান্দোর লাল কার্ডে ১০ জনের দলে পরিণত হলো।

পরক্ষণেই পাল্টে গেলো দৃশ্যপট। গ্রিজম্যানের অ্যাসিস্টে পিকের নাটকীয় গোলে, দুই লেগ মিলিয়ে ২-২'এর সমতার পর, অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো খেলায় আরও লিড নিতে দেরি হয়নি বার্সার। জর্ডি আলবার অ্যাসিস্টে ম্যাচের স্কোরলাইন ৩-০ করেন ব্রাথওয়েট।     

ফেব্রুয়ারি শেষ হয়েছিলো যেখানে, মার্চের শুরু সেখান থেকেই। পরপর দু'ম্যাচে সেভিয়াকে ডোবালো রোনাল্ড কোম্যানের দল। লা লিগায় জয় ছিলো ২-০'তে, এবারেরটা আরও তাৎপর্যপূর্ণ। এ মৌসুম শেষেই অন্য কোনো ঠিকানায় পাড়ি জমাতে পারেন মেসি। এই গুঞ্জন যদি সত্য হয়, বিদায়ের আগে ভালোবাসার ক্লাবের হয়ে শেষ মৌসুমে অন্তত একটা ট্রফি জয়ের সুযোগ এখনও আছে আর্জেন্টাইন তারকার। আর সে স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখার জন্য জেরার্ড পিকে একটা ধন্যবাদ পেতেই পারেন।

...

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চীনের প্রভাব আরো বাড়বে

করোনাভাইরাস ইস্যুতে চীন থেকে সরে যাওয়া বিদেশি বিনিয়োগের কিছু অংশ যাতে বাংলাদেশে আসে, সে লক্ষ্যে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, করোনা পরবর্তী সময়ে অর্থনীতির গতি-প্রকৃতিতে ব্যাপক পরিবর্তন আসছে। এ সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের, বিশেষ করে চীন থেকে বড় ধরনের বিনিয়োগ পাওয়ার আশায় রয়েছে সরকার। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এসব কারণে আগামীতে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চীনের প্রভাব আরও বাড়বে।

এদিকে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ নেওয়াসহ বিভিন্ন নীতিমালা সহজ করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। সর্বশেষ বাংলাদেশ ব্যাংক বিদেশি বিনিয়োগকারীদের বৈদেশিক মুদ্রার (এফসি) অ্যাকাউন্ট খোলার সুযোগ করে দিয়েছে। ফলে এখন থেকে বাংলাদেশের কোনও প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করা কোনও বিদেশি বিনিয়োগকারী তার লভ্যাংশের অর্থ এফসি অ্যাকাউন্টে রাখতে পারবেন। যেকোনও সময় অ্যাকাউন্ট থেকে অর্থ নিজ দেশে বা অন্য দেশে নিয়ে যেতে পারবেন। আবার বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলো চাইলে লভ্যাংশের অর্থ বাংলাদেশে বিনিয়োগও করতে পারবে। বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণ করতে নানা উদ্যোগের অংশ হিসেবে এই শিথিলতা এনেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। মঙ্গলবার (৭ জুলাই) এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করে ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

যদিও এর আগে একই বিষয়ে নানা ধরনের বিধিনিষেধ ছিল। মনে করা হচ্ছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের এই সিদ্ধান্তের ফলে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ার ক্ষেত্রে সহায়ক হবে। বিশেষ করে চীনা বিনিয়োগ বাড়ার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রাখবে।
এ প্রসঙ্গে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক আহসান মনসুর বলেন, ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের এই সিদ্ধান্তের ফলে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চীনে দাপট আরও বাড়বে। কারণ, সারা পৃথিবীর মধ্যে সম্পদশালী দেশ এখন চীন। এছাড়া, সারা পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগও চীনেরই। ফলে করোনা ইস্যুতে চীন থেকে কেউ তাদের বিনিয়োগ সরিয়ে নিলেও চীনের অর্থনীতিতে এর কোনও প্রভাব পড়বে না। তবে বাংলাদেশ ব্যাংক যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাতে বাংলাদেশে চীনের বিনিয়োগ বাড়বে।’

তিনি উল্লেখ করেন, অন্যান্য নতুন দেশ শুধু বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার দেখে এই দেশে বিনিয়োগ বাড়াবে না। কিন্তু চীনা প্রতিষ্ঠানগুলো চাইলে লভ্যাংশের অর্থ বাংলাদেশে বিনিয়োগও করতে পারবে। তিনি মনে করেন, বিনিয়োগ বাড়াতে হলে অনেক কিছু সহজ করতে হবে। যেমন, বিদেশি বিনিয়োগের জন্য এখানে বিনামূল্যে জমি দেওয়া, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম কমাতে হবে। রাস্তাঘাট ভালো করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘দেশে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে তিনটি দেশের দিকে নজর দিতে হবে। এই দেশ তিনটি হলো— প্রথমত চীন, এছাড়া জাপান ও কোরিয়া।’

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে চীনের প্রভাব এখন সবচেয়ে বেশি। ২০১৬ সালের পর থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ বাড়িয়েছে দেশটি। ফলে এই মুহূর্তে চীনই বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ বিনিয়োগকারী রাষ্ট্র।

এখন পর্যন্ত চীন থেকে বাংলাদেশে বিনিয়োগ এসেছে (স্টক বিনিয়োগ) ২ হাজার ৯০৭ মিলিয়ন ডলার। শুধু ২০১৯ সালে চীন থেকে নতুন বিনিয়োগ এসেছে এক হাজার ৪০৮ মিলিয়ন ডলার।

সরকারি হিসাব অনুযায়ী, ২০১৮ সালে বাংলাদেশে সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগ ছিল ৩৬০ কোটি ডলার। এরমধ্যে চীনই করেছে বেশি। গত বছর চীনের পর নেদারল্যান্ড ছিল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বিনিয়োগকারী রাষ্ট্র। দেশটি এখানে বিনিয়োগ করেছে ৬৯ কোটি ২০ লাখ ডলার। ৩৭ কোটি ১০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্রিটেন। যুক্তরাষ্ট্রের স্থান চতুর্থ। যদিও একসময় যুক্তরাষ্ট্রই ছিল শীর্ষে। ২০১৮ সালে ১৭ কোটি ৪০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করে চতুর্থ স্থানে ছিল যুক্তরাষ্ট্র। ১৯৮০ সালের পর থেকে বাংলাদেশে সরাসরি বিনিয়োগের সুযোগ সৃষ্টি হয়। ১৯৯৫ সালে মোবাইল টেলিযোগাযোগ খাতে বৈদেশিক বিনিয়োগে অনুমোদন দেয় বাংলাদেশ। এরপরই নরওয়ের টেলিনর ও মিসরের ওরাশকমের মতো টেলিকম জায়ান্ট বাংলাদেশে প্রবেশ করে।

জানা গেছে, মহামারি করোনার সংক্রমণ শুরুর পর চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে চীনে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ ১০ শতাংশ কমেছে। চীন থেকে সরতে চাওয়া বিদেশিদের আকর্ষণের জন্য ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া, ভারত, শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন দেশ নানা রকম চেষ্টা চালাচ্ছে। বাংলাদেশও সেটা করছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি ডিপার্টমেন্টের মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ খুরশিদ ওয়াহাব বলেন, ‘চীন থেকে সরে যাওয়া বিদেশি বিনিয়োগ বাংলাদেশে আসার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘গত ২৬ জুন অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে পাঠানো এক চিঠিতে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা যাতে অনায়াসে তাদের বিনিয়োগের অর্থ-লভ্যাংশ নিজ দেশ বা অন্যত্র নিয়ে যেতে পারেন, সে ব্যাপারে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংককে অনুরোধ করা হয়েছিল।’

সেই অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতেই বিদেশি বিনিয়োগকারীদের এফসি অ্যাকাউন্ট খোলার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এতে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে উৎসাহিত হবে বলে মনে করেন মোহাম্মদ খুরশিদ ওয়াহাব। তিনি উল্লেখ করেন, এতদিন বিদেশি বিনিয়োগকারীরা তাদের লভ্যাংশের অর্থ তাদের নিজ দেশে নিয়ে যেতে পারতেন। এখন এফসি অ্যাকাউন্ট খুলে ওই অ্যাকাউন্টে লভ্যাংশের অর্থ রাখতে পারবেন। আবার যখন খুশি বিনিয়োগকারীরা তার লভ্যাংশের অর্থ বাংলাদেশে যেকোনও প্রতিষ্ঠানে পুনঃবিনিয়োগ করতে পারবেন।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য দেশে ১০০ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে ‍তুলছে সরকার। এছাড়া বিদ্যমান ফরেন এক্সচেঞ্জ রেগুলেশন অ্যাক্ট যুগোপযোগী করার জন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি একটি খসড়া তৈরি করেছে।

বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে এই আইনে আর কী কী পরিবর্তন আনা দরকার, সেগুলো অন্তর্ভুক্ত করে দ্রুততম সময়ে আইনটি পাস করার ওপর জোর দেওয়া হয় চিঠিতে। বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধির যে সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে, তা কাজে লাগাতে ব্যাংকিং কার্যক্রম পর্যালোচনা করে বিদ্যমান আইনগত, নীতিগত এবং পদ্ধতিগত প্রতিবন্ধকতাগুলো চিহ্নিত করে তা দূর করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধও করে অর্থ মন্ত্রণালয়।

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, সদ্য সমাপ্ত অর্থবছরের ১১ মাসে (জুলাই-মে) বিভিন্ন খাতে সব মিলিয়ে ৩৭২ কোটি ৮০ লাখ ডলার এফডিআই বা সরাসরি বিনিয়োগ এসেছে, যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ১৪ শতাংশ কম।

পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য বলছে, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে চীন থেকে আমদানি হয়েছে ১৩ হাজার ৬৩৮ মিলিয়ন ডলারের পণ্য। একই সময়ে সর্বোচ্চ দ্বিতীয় আমদানিকারক দেশ ভারত থেকে ৭ হাজার ৬৪৭ মিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি হয়েছে। অর্থাৎ ভারতের চেয়ে চীন থেকে প্রায় দ্বিগুণ পণ্য আমদানি করেছে। এছাড়া চীনে পণ্য রফতানি হয়েছে ৭৪৭ দশমিক ৭ মিলিয়ন ডলারের। এদিকে বাংলাদেশের রফতানি বাড়াতে সম্প্রতি চীন বাংলাদেশকে বাণিজ্যিক সুবিধা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে চীনের বাজারে আরও ৫ হাজার ১৬১ পণ্যের ৯৭ শতাংশ শুল্কমুক্ত সুবিধা পেয়েছে বাংলাদেশ। চলতি বছরের ১ জুলাই থেকে বাংলাদেশ এ সুবিধা পাচ্ছে। আর এটি বলবৎ থাকবে ২০২৪ সাল পর্যন্ত। অবশ্য বাংলাদেশ ইতোমধ্যে চীন থেকে এপিটির আওতায় ৩ হাজার ৯৫টি পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা পেয়ে আসছিল। ওই সুবিধার বাইরে ৯৭ শতাংশ শুল্কমুক্ত সুবিধা দেওয়া হলো। এতে শুল্কমুক্ত সুবিধার আওতায় চীনের বাজারে বাংলাদেশের ৮ হাজার ২৫৬টি পণ্য শুল্কমুক্ত সুবিধার আওতায় এসেছে।

সরকারি তথ্য বলছে, এত কিছুর পরও চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য ঘাটতি রয়েছে ১২ হাজার ৮৯১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

...

সোনার দামে রেকর্ড

লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সোনার দাম। বিশ্বজুড়ে দ্বিতীয় দফায় করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হচ্ছে। বুধবার (৮ জুলাই) বিশ্ববাজারে সোনার দাম বেড়ে প্রতি আউন্স এক হাজার ৮০০ ডলার ছাড়িয়েছে। যা গত ৯ বছরের রেকর্ড।

এর আগে ২০১১ সালের সেপ্টেম্বরে এমন দাম বেড়েছিল। তবে এবার সোনার দাম বাড়ার পেছনে নিরাপদ বিনিয়োগকে কারণ মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

বুধবার যুক্তরাজ্যের বাজারে সোনার দাম বেড়ে প্রতি আউন্স হয় এক হাজার ৮০০ দশমিক ৮৬ ডলার, যা গত সাড়ে আট বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ দাম। এর আগে ২০১১ সালে সোনার দাম উঠেছিল ৯২১ দশমিক ১৮ ডলার।

গত বছরের শেষদিকে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি আউন্স সোনার দাম ছিল ১৪৫৪ ডলার। এরপর করোনাভাইরাস প্রকোপের মধ্যে ফেব্রুয়ারিতে ১৬৬০ ডলারে ওঠে। আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার এই দাম বাড়ার পরিপ্রেক্ষিতে দেশের বাজারেও দাম বাড়ানো হয়।

এছাড়া, গত ফেব্রুয়ারিতে ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম রেকর্ড ৬১ হাজার ৫২৭ টাকায় ওঠে। এছাড়া ২১ ক্যারেট ৫৯ হাজার ১৯৪ এবং ১৮ ক্যারেটের ৫৪ হাজার ১৭৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়। সনাতন পদ্ধতিতে সোনার দাম নির্ধারণ হয় ৪১ হাজার ৪০৭ টাকা।

তবে মার্চে আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দামে বড় পতন হয়। এক ধাক্কায় দাম কমে প্রতি আউন্স ১৪৬৯ ডলারে নেমে আসে। এ পরিপ্রেক্ষিতে দেশের বাজারেও সোনার দাম কমানো হয়।

...

সাত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত

দেশের সাত কৃষি ও কৃষি শিক্ষা প্রাধান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা ২৯ মে অনুষ্ঠিত হবে। 

শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কষ্ট লাঘব এবং আর্থিক অপচয় রোধকল্পে দেশের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষ্যে রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরকৃবি) অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। 

ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা এসএসসি ও এইচএসসিতে মোট জিপিএ (চতুর্থ বিষয় বাদে) ন্যূনতম ৮ থাকতে হবে। পৃথকভাবে এসএসসিতে জিপিএ ৩.৫ ও এইচএসসিতে জিপিএ ৩.৫ থাকতে হবে। পরীক্ষার সময় এক ঘণ্টা, বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এবং এমসিকিউ পদ্ধতিতে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আবেদনের তারিখসহ ভর্তিসংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য পরবর্তীতে জাতীয় দৈনিক পত্রিকা ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। 

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. গিয়াসউদ্দীন মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. লুৎফুল হাসান, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. মতিয়ার রহমান হাওলাদার এবং খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. শহীদুর রহমান খান ও পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলরের প্রতিনিধি হিসাবে প্রফেসর ড. পূর্ণেন্দু বিশ্বাস উপস্থিত ছিলেন। 

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর তোফায়েল আহমেদ, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ জামিনুর রহমান, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ও বশেমুরকৃবির রেজিস্ট্রার ও আইটি বিশেষজ্ঞরা উপস্থিত ছিলেন। 
এবারের ভর্তি পরীক্ষা কার্যক্রমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়- গাজীপুর, লিড ইউনিভার্সিটি হিসাবে দায়িত্ব পালন করবে। ৪৬টি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি গুচ্ছে ২০টি বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা নেবে। ৪ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে বুয়েট বাদে বাকি তিনটি একই পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেবে। বাকি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আলাদা পদ্ধতিতে পরীক্ষা গ্রহণ করবে।

...

এইচএসসি’র ফলাফল প্রকাশে তৈরি হচ্ছে নীতিমালা

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের কাজ শুরু হয়েছে। আগামী ২৫ ডিসেম্বর ফলাফল প্রকাশ করা হবে। ফলাফল তৈরিতে গ্রেড নির্ণয়ের একটি রূপরেখা রেখা চলতি মাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে গ্রেড মূল্যায়ন টেকনিক্যাল কমিটি। এ প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে একটি নীতিমালা তৈরি করে ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি ও গ্রেড মূল্যায়ন কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক মো. জিয়াউল হক এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, জেএসসি বা জেডিসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। আগের দুই পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে গ্রেড পয়েন্ট নির্ধারণ করা হবে।

অধ্যাপক মো. জিয়াউল হক বলেন, অটোপাসের মাধ্যমে পরীক্ষার্থীদের গ্রেড নির্ণয় করতে আট সদস্যের একটি টেকনিক্যাল কমিটি গঠন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে আমরা চারটি সভা করে একাধিক প্রস্তাব তৈরি করেছি। সেখান থেকে চূড়ান্ত একটি প্রস্তাব নির্বাচন করে নভেম্বরের শেষ দিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। এর ভিত্তিতে নীতিমালা তৈরি করে এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার ফলাফল তৈরি করা হবে। আগামী ২৫ ডিসেম্বরের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে আট সদস্যের এ কমিটি গঠিত হয়েছে। যেখানে ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যানকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। এছাড়া কমিটিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েট, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদফতরের প্রতিনিধি এবং কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানকে সদস্য হিসেবে রাখা হয়েছে।

গত ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনা মহামারির কারণে তা স্থগিত হয়ে যায়। করোনা কারণে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোও বন্ধ রাখা হয়েছে।

...

দর্শকদের আবেগে ভাসিয়ে শেষ হলো ব্যাচেলর পয়েন্ট

নাটকীয় ঘটনার মধ্য দিয়ে  সমাপ্তি টানা হলো আলোচিত ও তুমুল দর্শকপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাটকের তৃতীয় সিজনের। দর্শকপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থাতেই নাটকটির ইতি টানা হলো। বিষয়টি নিয়ে মন খারাপ দর্শকদের। মন খরাপের হাওয়া বইছে ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকের টিমের সদস্যদের মাঝেও। 

এই মন খারাপের সময়ে নাটকটির নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি  সস্থির কথা শোনালেন। জানালেন, নাটকটির সিজন ফোর নিয়ে আপাতত কোনো পরিকল্পনা না থাকলেও ব্যাচেলর পয়েন্টের সদস্যরা কে কোথায় থাকবেন বা আছেন সেটা দেখানের পরিকল্পনা আছে তার। 

অমি বলেন, 'যদি আমি সুস্থভাবে বেঁচে থাকি ব্যাচেলর পয়েন্ট নাটকের কে কোথায় কিভাবে আছেন সেটা দেখাবোই। সেটা যে কোনো প্লাটফর্মে হতে পারে। দীর্ঘ সময়ের পরও হতে পারে। তবে আমি জিবিত থাকলে দর্শকদের সামনে প্রতিটি সদস্যের শেষ অবস্থা নিয়ে হাজির হবোই।'

শেষ পর্বে দেখা গেছে, শুভ আর শিমুলের ওপর হামলার প্রতিশোধ নেয় কাবিলা। পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন তিনি। তার সঙ্গে থানায় দেখা করতে ছুটে যান শুভ। মাফ চেয়ে নেন আগের ভুলের জন্য। শুরু হয় কাবিলাকে ছাড়িয়ে আনার মিশন। যে নাটক দেখে এতোদিন দর্শকরা হেসেছেন শেষ পর্বে সেই নাটক দেখে দর্শকদের হৃদয়ে হয়েছে হাহাকার ছুয়ে গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেটা প্রকাশ করছেন তারা। 

 দুঃখভারাক্রান্ত নাটকটির পুরোটিম। অমি জানালেন, ‌'নাটকটির শেষ দিনের শুটিংয়ে আমরা কোনো কথা বলতে পারছিলাম না। প্রতিটি দৃশ্যের শুটিংয়ের মাঝেই কথা বলতে বলতে আবেগি হয়ে পড়ছিলাম সবাই। চোখে জল নিয়ে শেষ দৃশ্যের শুটিং আমাদের করতে হয়েছে।'

'ব্যাচেলর পয়েন্ট' নাকটটির সমাপ্তি টানার আগ পর্যন্ত দর্শকদের কাছে তুমুল জনপ্রিয়তার তালিকাতেই ছিলো। পরিচালক জানালেন এটাই তাদের প্রাপ্তি। টানা তিন সিজন জনপ্রিয়তা ধরে রেখে সেই জনপ্রিয়তা থাকা অবস্থাতেই নাটকটির ইতি টানা একটা ভাগ্যের ব্যাপার বলেই মন্তব্য তার। 

অমি বলেন, 'দর্শকদের ভালোবাসাই নাটকটির বড় প্রাপ্তি। নাটকটির শেষ করায় দর্শকরা অনেক কষ্ট পাচ্ছেন। কারণ তারাও ব্যাচেলর পয়েন্টের পরিবার। নাটকটি শেষ হওয়ায় অনেকে আমাকে হুমকি দিচ্ছেন। অনুরোধ করছেন সিজন ফোর নির্মাণের। নির্মাতা হিসেবে এটাই আমার প্রাপ্তির জায়গা। দর্শকরা ভালোবাসা থেকেই হুমকি দিচ্ছেন, অনুরোধ করছেন। তবে দর্শকদের প্রতি সম্মান রেখেই জানাচ্ছি, নাটকটি যেনো তাদের মধ্যে একি ঘেয়েমির কারণ না হয়ে আসে সে চেষ্টা আমরা সব সময়ে করেছি। শেষ করার পর বুঝতে পেরেছি এ ক্ষেত্রে আমরা সফল। নাটকটিতে এক ঘেয়েমি আসার আগেই শেষ করতে পেরেছি।'

সিজন থ্রিতে ব্যাচেলর হয়ে বাসায় থাকা বন্ধুদের গল্প তুলে ধরা হয়েছে নাটকটিতে। এই সিজনের বিদায় নিয়েছে তিনটি জনপ্রিয়  চরিত্র। নেহাল, আরেফিন ও হাবু ভাই। পাশাপাশি যোগ হয়েছিলো নতুন চরিত্রও। শেষ পর্বে সাসপেন্স রেখেই শেষ হলো তৃতীয় সিজন। 

মোশনরক এন্টারটেইনমেন্ট ব্যানারে নাটকটি প্রযোজনা করেছে ধ্রুব টিভি। এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিশু সাব্বির, মারজুক রাসেল, তৌসিফ মাহবুব, চাষি আলম, শামীম হাসান সরকার, জিয়াউল হক পলাশ, মুসাফির শোয়েব, মনিরা মিঠু সাবিলা নূর, সানজানা সরকার রিয়া, শিমুলসহ অনেকেই।

...

চট্টগ্রামে কিছুতেই কমছে না সংক্রমণের উর্ধ্বগতি; কন্ট্রাক্ট ট্রেসিং চালুর তাগিদ

চট্টগ্রামে করোনা সংক্রমণের উর্ধ্বগতি ঠেকাতে খোঁজা হচ্ছে নানা উপায়। স্বাস্থ্যবিধি মানাসহ নানা উদ্যোগের পাশাপাশি এখন সামনে আসছে, কন্ট্রাক্ট ট্রেসিংয়ের বিষয়টি। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিভিন্ন সংগঠন আর স্বেচ্ছাসেবীদের কাজে লাগিয়ে চালু করা যেতে পারে এই কার্যক্রম। এতে দ্রুতই কমবে সংক্রমণ, কমবে ঝুঁকি। বিষয়টি নিয়ে ভাবছে স্বাস্থ্যবিভাগও।

করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই শনাক্ত আর মৃত্যুর উচ্চঝুঁকিতে রয়েছে বন্দরনগরী চট্টগ্রাম। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় প্রতিদিন শনাক্ত ২০ শতাংশের ওপর। 

রোগীর চাপে হাসপাতালগুলোতে বেড়েছে শয্যা সংকট। এ অবস্থায় সংক্রমণ রোধে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলাবাহিনী নানা উদ্যোগ নিলেও তা তেমন কাজে আসছেনা। 

তবে এই উর্ধগতি ঠেকাতে কন্ট্রাক্ট ট্রেসিং-কে ভালো বিকল্প বলছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, আক্রান্ত ও তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের খুঁজে বের করে আইসোলেশন নিশ্চিত করা গেলে দ্রুত কমবে সংক্রমণ। এই প্রক্রিয়া কষ্টসাধ্য আর প্রচুর জনবলের দরকার হলেও তা বাস্তবায়নের ওপর জোর দিচ্ছেন তারা। 

কন্ট্রাক্ট ট্র্যাসিং-কে ভালো উপায় মানছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারাও। 

চট্টগ্রামে আক্রান্ত ছাড়িয়েছে ৪৩ হাজার, প্রাণহানি চারশতাধিক। তবে সংক্রমণ রোধের উপায় হিসেবে গেলবছর আক্রান্তদের বাড়িঘর লকডাউন করা হলেও নানা কারণে এবার সেপথে যাচ্ছেনা প্রশাসন।

...

ঝাল খান, অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি কমান

সুস্থ থাকতে নিয়মিত ঝাল খাওয়ার পরামর্শ দিলেন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞরা। 

সমীক্ষায় দেখা গেছে, প্রচুর পরিমাণে মশলাদার খাবার খাওয়ার ফলে এক চতুর্থাংশের মধ্যে অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি কমে যায়। যারা নিয়মিত এ ধরনের খাবার খান তাদের কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ (সিভিডি) বা ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি যথাক্রমে ২৬ এবং ২৩ শতাংশ কম।

ক্লিভল্যান্ড ক্লিনিকের হার্ট, ভাস্কুলার এবং থোরাসিক ইনস্টিটিউটের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. বো জু সম্প্রতি আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের (এএইচএ) ভার্চুয়াল সভায় এ গবেষণাপত্র উপস্থাপন করেন। বড় ধরনের এ গবেষণা বিশ্বজুড়ে প্রায় ৬ লাখ মানুষের স্বাস্থ্য ও ডায়েট রেকর্ডের ওপর ভিত্তি করে করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে ব্রিটিশ হার্ট ফাউন্ডেশনের পুষ্টি বিভাগের প্রধান ডা. ভিক্টোরিয়া বলেন, রান্নায় ভেষজ এবং মশলাযুক্ত করাটা খাবারের স্বাদে বৈচিত্র্য আনার পাশাপাশি পুষ্টির একটি দুর্দান্ত উপায় হয়ে ওঠে। রান্নায় কাঁচা মরিচ, শুকনা মরিচ, গোলমরিচ এবং লেবুর রস যুক্ত করাটা যেমন স্বাস্থ্যকর তেমনি এটি লবণের পরিমাণ কমাতেও সহায়তা করে।

...

হাত-পা অবশ হয় যেসব কারণে

প্রায়ই আমরা দীর্ঘক্ষণ একই ভঙ্গিমায় বসে থাকার কারণে আমাদের হাত পা ঠিক মতো কাজ করে না। আসুন জেনে নেই কেন এমনটা ঘটে।

কখনো কখনো দীর্ঘক্ষণ হাতের উপর ভর দিয়ে শুয়ে থাকলে বা পায়ের উপর পা তুলে রাখার ফলে অবশ হয়ে যাওয়া স্বাভাবিক ঘটনা।

তবে এমনটা বার বার হতে থাকলে এবং শরীরের অন্যান্য অংশেও হলে সতর্ক হওয়া জরুরি। মাল্টিপল স্ক্লেরোসিসের কারণে এমনটা হতে পারে। এই সমস্যায় স্নায়ুতন্ত্রের মায়োলিন সিথ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

যে সব মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত তাদের অনেকের মধ্যেই পেরিফেরাল স্নায়ু রোগের প্রকোপ লক্ষ্য করা যায়। পেরিফেরাল স্নায়ুর সমস্যায় পায়ের পাতা ঘন ঘন অবশ হয়ে যেতে পারে। পরবর্তীকালে এই অবশ ভাব শরীরের উপরের অংশেও ছড়িয়ে পড়ে।

স্নায়ু ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ফলে হাত, পা ও শরীরের অন্যান্য অংশে তীব্র ব্যথা এবং জ্বালা হতে পারে। স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, নিউরালজিয়ার কারণে এমনটা হতে পারে। শরীরের যে কোনো অংশেই এই সমস্যা হতে পারে। বিশেষ করে কোনো সংক্রমণের কারণে বা বয়সের কারণে হতে পারে এই রোগ।

মস্তিষ্কে যদি রক্ত সরবরাহ পর্যাপ্ত না হয় সে ক্ষেত্রে স্ট্রোক হয়। বিশেষ করে রক্তনালী কোনো কারণে বাধাপ্রাপ্ত হলে এমন হয়। স্ট্রোকের প্রথম লক্ষণ হলো বাঁ হাত অবশ হয়ে যাওয়া যা ক্রমশ হাতের তালু পর্যন্ত ছড়িয়ে পরে।

সিস্টেমিক ডিজিজে হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট হলে, এর জন্য ক্যান্সার সৃষ্টিকারী টিউমার বা স্নায়ুর নানা সমস্যা হতে পারে। প্রাথমিক ভাবে সিস্টেমিক ডিজিজে হাত, পা-সহ শরীরের একাধিক অংশ অবশ হয়ে যেতে পারে।

...

বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ, চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন ২০২১ স্মরণিকা উপ-পরিষদের জরুরি বিজ্ঞপ্তি।

এতদ্বারা সকলের অবগতির জন্য জানানাে যাচ্ছে যে, বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন ২০২১ উপলক্ষ্যে একটি স্মরণিকা প্রকাশ হতে যাচ্ছে। উক্ত স্মরণিকায় মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ এবং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর সভাপতি/ আহ্বায়ক /সাধারণ সম্পাদক/ যুগ্ম আহ্বায়ক সহ সকল সদস্যবৃন্দদের অনুরােধ করা যাচ্ছে যে, উক্ত স্মরণিকায় প্রবন্ধ, কবিতা দেওয়ার ইচ্ছুক হইলে আগামী ২২-২৪ মার্চ এর মধ্যে লিখিত প্রবন্ধ, কবিতা, অবশ্যই জমা দেওয়ার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

যােগাযােগঃ

১। মােঃ জাহিদুল হাসান- ০১৬৩১-৬২৩৪০৬
Email : [email protected]

২। মােঃ ইসমাইল হােসেন শুভ- ০১৬৮৩-০৭৭৬৩৩

Email : [email protected]

৩। এডভােকেট রুবেল পাল- ০১৭১৬-২৯৯১৯৬

Email: ad.robel [email protected]
শুভেচ্ছান্তেঃ

১। কাজী মোঃ হেলাল উদ্দিন

আহ্বায়ক, স্মরণিকা উপ-পরিষদ।
বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন ২০২১
মোবাইলঃ ০১৮১৮-১৯২৭৫৩

২। সামশেদ খোকন

যুগ্ম-আহবায়ক,স্মরণিকা উপ-পরিষদ।
বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ চট্টগ্রাম মহানর সম্মেলন ২০২১
মােবাইলঃ ০১৮১৭-২০৪৭৯৭

৩। ওসমান গণি মানিক

সদস্য সচিব, স্মরণিকা উপ-পরিষদ।
বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন ২০২১
মোবাইলঃ ০১৮০৯-৯৮৮১১১

বিঃ দ্রঃ প্রবন্ধ সংক্ষিপ্ত আকারে লিখুন।

...

পাবজি খেলা কতটা ঝুঁকিপূর্ণ?

পাবজি! প্লেয়ার্স আননোন ব্যাটেল গ্রাউন্ড! বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইলন গেম। বর্তমানে উপমহাদেশে কয়েকগুণ বেড়েছে এই গেমের জনপ্রিয়তা। মোবাইল এবং কম্পিউটার দুটোতেই খেলা যায় এই গেম। তবে উপমহাদেশে পাবজির কম্পিউটার ভার্সনের থেকে মোবাইল ভার্সনটিই বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। 

মোবাইল ফোনের সহজলভ্যতা এবং হাতের নাগালের মধ্যে থাকা ইন্টারনেটের কারণেই এই গেমটির জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। বর্তমানে এই গেমে অত্যধিক আসক্ত হয়ে পড়ছে শিশু থেকে শুরু করে কিশোর এবং তরুণরাও।

অন্যান্য ব্যাটেল রয়্যাল গেমের মতোই পাবজিও অনেক বেশি হিংস্র গেম। এবং এর ভয়াবহতা এতই বেশি যে শিশু এবং কিশোরদের মধ্যে এক প্রকার ক্ষিপ্রতা সৃষ্টি করে এই গেম। অত্যধিক মাত্রায় হিংস্রতা থাকায় ১৩ বছরের কম বয়সীদের জন্য এই গেমটি নিষিদ্ধ। অতিরিক্ত হিংস্রতা শিশু-কিশোরদের মধ্য বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। এবং পরবর্তী জীবনে শিশুদের হিংস্র করে তুলতে পারে এই গেম।

এ ধরনের আসক্তি বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, এসব গেমে আসক্তির কারণে কিশোররা পারিবারিক, সামাজিক অবস্থান থেকে বিচ্যুত হয়ে যাচ্ছে। খেলার এক পর্যায়ে এসে তারা ভায়োলেন্ট হয়ে যেতে পারে। এমনকি এটি আলোচিত আরেক 'ব্লু হোয়েল' গেমের মতো কোনো পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে।

কেবল শারীরিক ক্ষতির কারণই নয় এই পাবজি গেমটি। সেই সাথে মানসিক রোগের কারণও হতে পারে এই গেমটি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) এক গবেষণার পর জানিয়েছে ভিডিও গেমে আসক্তি এক ধরণের মানসিক রোগ। ভিডিও গেমগুলো একজন খেলোয়াড়ের ডিপ্রেশনের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

শারীরিক মানসিক রোগের সাথে সাথে পাবজি গেমটি একজন শিশু কিংবা কিশোরের উপর সামাজিক মূল্যবোধের জন্য বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে। গেমটি যেহেতু একটি জায়গাতেই আটকে থেকে খেলতে হয় সেহেতু এই গেম খেলা মানুষটি সামাজিকভাবে খুব বেশি সংযুক্ত থাকতে পারে না। আর এই কারণে সামাজিক মূল্যবোধের সাথে সমাজের আচার ব্যবহার থেকেও ধীরে ধীরে দূরে সরে যেতে হয় সেই মানুষটিকে। সর্বোপরি একটা সময় একাকীত্ব বরণ করতে হয় তাদেরকে।

এই গেমটি অতিরিক্ত খেলার কারণে চোখের সমস্যাও হতে পারে। আর সেই সাথে দেখা দেয় ঘুমের ঘাটতিও। কম্পিউটার কিংবা মোবাইলের স্ক্রিনে বেশি সময় ধরে তাকিয়ে থাকার কারণে চোখের ক্ষতি হতে পারে। আর চোখের সমস্যার সাথে সাথে ঘুমেরও ঘাটতিতে পড়ে এই গেম খেলা মানুষগুলি।

...

চান্দ মালিকঃ বাংলাদেশের এক দুর্ধর্ষ স্পাই

দিওয়ান চান্দ মালিক(ছদ্মনাম), এক দুঃসাহসী বাংলাদেশি স্পাই।
 

দিওয়ান চান্দ মালিক ১৯৯৯ সালে ছদ্ম পরিচয় ও ভূয়া কাগজপত্র ব্যাবহার করে ভারতীয় গুপ্তচর বিভাগ র' (রিসার্চ & অ্যানালাইসিস উইং)-এ যোগদান করেন।
বস্তুত তিনি ছিলেন বাংলাদেশী গোয়েন্দা সংস্থা ন্যাশনাল সিকিউরিটি ইন্টেলিজেন্স (এন.এস.আই) এর  এর একজন এজেন্ট। তিনি এর আগে কয়েকবছর পশ্চিমবঙ্গে ছিলেন, লেখাপড়াও কমপ্লিট করেন কলকাতা থেকে।

দুঃসাহসী এই ডাবল এজেন্ট ২০০৫ সাল পর্যন্ত কলকাতায় র' এর এভিয়েশন রিসার্চ সেন্টারে একজন ক্লাস-১ অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এভিয়েশন রিসার্চের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ইন্টেল ছিলো তাঁর নখদর্পণে। র' এর কর্মকর্তারা কখনো ঘুনাক্ষরেও সন্দেহ করতে পারে নি তাকে।


আমরা জানি একজন ডাবল এজেন্ট যত চালাকই হোক না কেন, তার পরিচয় একসময় ফাঁস হয়েই যায়......আর তারা সেই ঝুঁকিটা মেনে নিয়েই এই পেশায় নামেন।

যাইহোক, আমাদের দেশি গুপ্তচরের কপাল খারাপ, তার পরিচয় এক্সপোজ করে দেয় তার ঝগড়াটে বউ। মহিলা ২০০৫ সালের শুরুর দিকে কোর্টে ডিভোর্সের আবেদন করে। সুচতুর মালিক সেই সময়ই অফিস থেকে ছুটি নিয়ে পালিয়ে যান। কোর্টে পর পর কয়েকটা ডেট মিস করার পর এপ্রিলে মিসেস মালিক রাগে দুঃখে পাগল হয়ে এভিয়েশন রিসার্চ সেন্টারে একটা চিঠি পাঠায়, যাতে লেখা ছিলো যে মালিক আসলে একজন বাংলাদেশী নাগরিক।

র' এর লোকেরা ব্যাপারটার গুরুত্ব বুঝতে দেরি করে নি, প্রায় সাথে সাথেই একটা "ম্যানহান্ট" অপারেশন লাঞ্চ করে ফেলে তারা। সমস্ত রেলওয়ে স্টেশন, এয়ারপোর্ট, বন্দরে তাঁর নামে "লুকআউট নোটিশ" জারি করা হয়।

এরপর আদালত তাকে অপরাধী ঘোষনা করলে ইন্টারপোলের মাধ্যমে দিওয়ান চান্দ মালিকের নামে "রেড কর্নার নোটিশ" (অনেকটা আন্তর্জাতিক অ্যারেস্ট ওয়ারেন্ট টাইপ) জারি করা হয়।

এরপর কয়েকবছর ধরে "ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো" আর র' যৌথভাবে মালিককে গ্রেফতার করার জন্যে সম্ভ্যব্য সবরকম চেষ্টাই করে। পরিচয় ফাঁসের কয়েকমাস পর চব্বিশ পরগনা জেলায় আইবির লোকজনের হাতে ধরা পড়তে পড়তে একেবারে শেষ মূহুর্তে পালিয়ে যান তিনি। তারপর থেকেই আর কখনোই কোন খোঁজখবর পাওয়া যায়নি এই স্পাইয়ের। র' ও আইবির নাকের ডগা দিয়ে হাওয়ায় মিলিয়ে যান তিনি।

তো............ফ্রান্স, আমরা কি শিখলাম?? নেভার মেস উইথ ইয়োর ওয়াইফ।

স্পেশালি যদি আপনি দিওয়ান চান্দের মতো ডাবল এজেন্ট হন তাহলে আরো বেশি সাবধানে থাকবেন। দিওয়ানের বউ যদি তাঁর পরিচয় ফাঁস না করতো, তাহলে তিনি হয়তো এখনো সেখানে নির্বিবাদে তাঁর কাজ করতে পারতেন।

পর্যাপ্ত ট্রেনিং দিলে যোদ্ধা প্রায় সবাই ই হতে পারে, কিন্তু নিজের অস্তিত্ব কে বিসর্জন দিয়ে অন্য কোন দেশে গিয়ে প্রতি মূহুর্তে ধরা পড়ার ঝুকি নিয়ে ডাবল এজেন্ট সবাই হতে পারবেন না। একবার একটা গল্পে লিখেছিলাম, "দেশকে তো সবাই ভালোবাসতে পারে, অনেকেই নিজের প্রাণও দিতে পারে, কিন্তু দেশের জন্যে সবচেয়ে প্রিয় জিনিস নিজের অস্তিত্বকে বিসর্জন দিতে হয় তাদেরকে। হ্যা, মানুষের সবচেয়ে প্রিয় জিনিস তার প্রাণ নয়, অস্তিত্ব!
They are the warriors who never existed and never will be……" "

নাম না জানা এই অস্তিত্বহীন যোদ্ধার জন্য এবং সকল অস্তিত্বহীন যোদ্ধাদের জন্য রইলো শুভকামনা। 

...

আজকের ইফতার ও সেহেরির সময় সূচি

আজ ১৮ রমজান ১২ মে (মঙ্গলবার)। ঢাকায় আজ ইফতার শুরু ৬টা ৩৬ মিনিটে এবং সেহরির শেষ সময় ৩টা ৪৮ মিনিট।

দেশের কিছু জেলায় ঢাকার সময়ের সঙ্গে সেহরি এবং ইফতারের সময়ের মিল রয়েছে। তবে বেশিরভাগ জেলার সাথে ঢাকা জেলার ইফতার এবং সেহরির সময়ের কিছুটা পার্থক্য আছে। ঢাকার সময়ের সাথে কিছু সময় যোগ বা বিয়োগ করে অন্যান্য জেলার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি পাওয়া যাবে। সেক্ষেত্রে ঢাকার সময়ের সাথে কত মিনিট যোগ বা বিয়োগ করলে অন্য জেলার সেহরি ও ইফতারের সময় পাওয়া যাবে তা নিচের তালিকায় দেখুন-

ঢাকা বিভাগ

নরসিংদী (সেহরি: -২ মিনিট, ইফতার: -১ মিনিট)
গাজীপুর (সেহরি: -১, ইফতার: ঢাকার সঙ্গে)
শরীয়তপুর (সেহরি: ২ মিনিট, ইফতার: -১ মিনিট)
নারায়ণগঞ্জ (সেহরি: ঢাকার সঙ্গে, ইফতার: -১ মিনিট)
টাঙ্গাইল (সেহরি: ঢাকার সঙ্গে, ইফতার: +২ মিনিট)
কিশোরগঞ্জ (সেহরি: -২ মিনিট, ইফতার: -১ মিনিট)
মানিকগঞ্জ (সেহরি: +১ মিনিট, ইফতার: +২ মিনিট)
মুন্সিগঞ্জ (সেহরি: ঢাকার সঙ্গে, ইফতার: -১ মিনিট)
রাজবাড়ী (সেহরি: +৪ মিনিট, ইফতার: +৪ মিনিট)
মাদারীপুর (সেহরি: +২ মিনিট, ইফতার: ঢাকার সঙ্গে)
গোপালগঞ্জ (সেহরি: +৪ মিনিট, ইফতার: +১ মিনিট)
ফরিদপুর (সেহরি: ২ মিনিট, ইফতার: +২ মিনিট)

চট্টগ্রাম বিভাগ

কুমিল্লা (সেহরি: -৩ মিনিট, ইফতার: -৪ মিনিট)
ফেনী (সেহরি: -২ মিনিট, ইফতার: -৫ মিনিট)
ব্রাহ্মণবাড়িয়া (সেহরি: -৪ মিনিট, ইফতার: -৩ মিনিট)
রাঙ্গামাটি (সেহরি: -৪ মিনিট, ইফতার: -৯ মিনিট)
নোয়াখালী (সেহরি: -১ মিনিট, ইফতার: -৪ মিনিট)
চাঁদপুর (সেহরি: ঢাকার সঙ্গে, ইফতার: -২ মিনিট)
লক্ষ্মীপুর (সেহরি: -১ মিনিট, ইফতার: -৩ মিনিট)
চট্টগ্রাম (সেহরি: -২ মিনিট, ইফতার: -৮ মিনিট)
কক্সবাজার (সেহরি: -১মিনিট, ইফতার: -১০ মিনিট)
খাগড়াছড়ি (সেহরি: -৫ মিনিট, ইফতার: -৮ মিনিট)
বান্দরবান (সেহরি: -৪ মিনিট, ইফতার: -১০ মিনিট)

রাজশাহী বিভাগ

সিরাজগঞ্জ (সেহরি: ১ মিনিট, ইফতার: +৪ মিনিট)
পাবনা (সেহরি: +৪ মিনিট, ইফতার: +৫ মিনিট)
বগুড়া (সেহরি: ১+ মিনিট, ইফতার: +৬ মিনিট)
রাজশাহী (সেহরি: +৫ মিনিট, ইফতার: +৮ মিনিট)
নাটোর (সেহরি: +৪ মিনিট, ইফতার: +৭ মিনিট)
জয়পুরহাট (সেহরি: ২+ মিনিট, ইফতার: +৮ মিনিট)
চাঁপাইনবাবগঞ্জ (সেহরি: +৬ মিনিট, ইফতার: +১০ মিনিট)
নওগাঁ (সেহরি: ৩+ মিনিট- ইফতার: +৮ মিনিট)

খুলনা বিভাগ

যশোর (সেহরি: +৬ মিনিট, ইফতার: +৪ মিনিট)
সাতক্ষীরা (সেহরি: +৮ মিনিট, ইফতার: +৪ মিনিট)
মেহেরপুর (সেহরি: +৭ মিনিট, ইফতার: +৭ মিনিট)
নড়াইল (সেহরি: +৫ মিনিট, ইফতার: +২ মিনিট)
চুয়াডাঙ্গা (সেহরি: +৬ মিনিট, ইফতার: +৬ মিনিট)
কুষ্টিয়া (সেহরি: +৫ মিনিট, ইফতার: +৫ মিনিট)
মাগুরা (সেহরি: , ইফতার: +৩ মিনিট)
খুলনা (সেহরি: +৬ মিনিট, ইফতার: +২ মিনিট)
বাগেরহাট (সেহরি: +৫ মিনিট, ইফতার: +১ মিনিট)
ঝিনাইদহ (সেহরি: +৫ মিনিট, ইফতার: +৫ মিনিট)

বরিশাল বিভাগ

ঝালকাঠি (সেহরি: ৩ মিনিট, ইফতার: -১ মিনিট)
পটুয়াখালী (সেহরি: +৪ মিনিট, ইফতার: -২ মিনিট)
পিরোজপুর (সেহরি: +৫ মিনিট, ইফতার: ঢাকার সঙ্গে)
বরিশাল (সেহরি: ২ মিনিট, ইফতার: -২ মিনিট)
ভোলা (সেহরি: ২ মিনিট, ইফতার: -৩ মিনিট)
বরগুনা (সেহরি: +৫ মিনিট, ইফতার: -২ মিনিট)

সিলেট বিভাগ

সিলেট (সেহরি: -৯ মিনিট, ইফতার: -৪ মিনিট)
মৌলভীবাজার (সেহরি: -৮ মিনিট, ইফতার: -৪ মিনিট)
হবিগঞ্জ (সেহরি: -৬ মিনিট, ইফতার: -৩ মিনিট)
সুনামগঞ্জ (সেহরি: -৭ মিনিট, ইফতার: -২ মিনিট)

রংপুর বিভাগ

পঞ্চগড় (সেহরি: +১ মিনিট,  ইফতার: +১১ মিনিট)
দিনাজপুর (সেহরি: +২ মিনিট, ইফতার: +১০ মিনিট)
লালমনিরহাট (সেহরি: -২ মিনিট, ইফতার: )
নীলফামারী (সেহরি: +১ মিনিট, ইফতার: +১০ মিনিট)
গাইবান্ধা (সেহরি: -১ মিনিট, ইফতার: +৬ মিনিট)
ঠাকুরগাঁও (সেহরি: +২ মিনিট, ইফতার: +১১ মিনিট)
রংপুর (সেহরি: -১, ইফতার: +৮ মিনিট)
কুড়িগ্রাম (সেহরি: -২ মিনিট, ইফতার: +৭ মিনিট)

ময়মনসিংহ বিভাগ

শেরপুর (সেহরি: -২ মিনিট, ইফতার: +৩ মিনিট)
ময়মনসিংহ (সেহরি: -২ মিনিট, ইফতার+১ মিনিট)
জামালপুর (সেহরি: -২ মিনিট, ইফতার: +৪ মিনিট)
নেত্রকোনা (সেহরি: -৫ মিনিট, ইফতার: ঢাকার সঙ্গে)

...

করোনায় দাম কমিয়ে অক্টোবরে আসছে আইফোন ১২

মার্কিন বহুজাতিক প্রযুক্তি কোম্পানি অ্যাপল ইনকরপোরেটেডের ‘আইফোন ১২’ চলতি বছরের অক্টোবরেই বাজারে আসছে। কোম্পানি কিছু না জানালেও গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে ১২ অক্টোবর ফোনটির উন্মোচন হবে এবং ১৮ অক্টোবর তা ভোক্তাদের জন্য বাজারে ছাড়া হবে।

চলতি সপ্তাহেই বিষয়টি অফিশিয়ালি নিশ্চিত করবে অ্যাপল। তবে সেই ঘোষণার আগেই আলোচনার তুঙ্গে আইফোনের সর্বশেষ সংস্করণটি। ফোনটি কেমন হতে যাচ্ছে, কত দামে কেনা যাবে এসব নিয়ে আলোচনায় মেতেছে অ্যাপলপ্রেমীরা।

ভোক্তাদের আগ্রহকে বিবেচনায় এনে ‘আইফোন ১২ এর আগাম ধারণা দিয়েছে মার্কিন সাময়িকী ফোর্বস, প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য ভার্জ।

অ্যাপলের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ভার্জ জানিয়েছে, ‘আইফোন ১২’ একটি ফাইভজি প্রযুক্তির ফোন। এটির চারটি সংস্করণ বাজারে অবমুক্ত হবে। সংস্করণগুলো হলো- ‘আইফোন ১২’, ‘আইফোন ১২ ম্যাক্স’ ‘আইফোন ১২ প্রো’ ‘আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্স’।

প্রতিটি সংস্করণের সাইজে ভিন্নতা থাকছে। আইফোন ১২ ফোনটি হবে ৫.৪ ইঞ্চি, আইফোন ১২ ম্যাক্স ৬.১ ইঞ্চি, আইফোন ১২ প্রো ৬.১ ইঞ্চি এবং আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্স ফোনটি হবে ৬.৭ ইঞ্চি।

শুধু আকারেই ন,য় সংস্করণ অনুযায়ী এর ক্যামেরা ও ব্যাটারিতেও পার্থক্য থাকবে। এবার মূল প্রশ্নের দিকে আসা যাক। দাম কত?

ফোনের দামের ক্ষেত্রে বলা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে করোনার কারণে দাম কিছুটা কমিয়ে ফোনটি বিক্রি করা হবে ৬৪৯ থেকে এক হাজার ৯৯ মার্কিন ডলারের মধ্যে। বাংলাদেশি টাকায় ৯৩ হাজার ৪১৫ টাকা।

...

গরমে ৩ রকমের গোসল, থাকুন সতেজ

প্রচণ্ড গরমে হাঁসফাঁস করছে মানুষ। আর এ সময় আরামদায়ক একটা গোসল এনে দিতে পারে আপনাকে প্রশান্তি। আর গরমকালে উপযুক্ত তিনটি গোসল করতে পারেন, যা আপনাকে সারাদিন রাখবে সতেজ ও ঠান্ডা।

১. প্রচুর টাকা খরচ করে স্পা বাথ না নিয়ে ঘরে বসেই করে ফেলুন। একটু সময় ব্যয় করলে বাড়িতেই নিতে পারেন স্পা বাথ। গোসলের পানিতে মিশিয়ে নিন বাথিং সল্ট। তার মধ্যে কিছুটা পরিমাণ গোলাপ জল, পুদিনা পাতার রস ঢেলে দিন। গোসল শেষে পরিষ্কার পানি গায়ে ঢেলে নিন। গরমে সারাদিন সতেজ থাকতে এ গোসল দারুণ কার্যকর।

২. গরমরকালের গোসল মানে, অবশ্যই তার সঙ্গে যুক্ত হবে সুগন্ধি। গোসলের পর হালকা ঘ্রাণ যদি না ছড়ায়, সেই গোসলের মানেই হয় না। তাই এই গরমে অডিকোলন গোসল হোক একেবারে আবশ্যিক। বাজার চলতি অনেক অডিকোলন রয়েছে। গোসল করার পানি, তা মিশিয়ে নিলেই হলো। বাড়িতেও বানাতে পারেন অডিকোলন ৷ গোলাপ জলে কিছু পরিমাণ সাদা চন্দন বেঁটে নিন। বেঁটে নিতে পারেন কিছু পরিমাণ পুদিনা পাতাও। গোসলের পানিতে  মিশিয়ে, গোসল সেরে ফেলুন। সারাদিন থাকুন সতেজ।

৩. বাজার থেকে গোলাপ জলের বোতল কিনে এনে, রোজকার গোসলে মিশিয়ে নিতে পারেন ৷ কিংবা বাড়িতেই বানিয়ে নিতে পারেন গোলাপ জল। গোলাপের পাপড়ি ফুটিয়ে নিন। সেই পানি ঠান্ডা করে তার মধ্যে অল্প পরিমাণ মিশিয়ে ফেলুন গ্লিসারিন। গোসলের পানিতে মিশিয়ে নিন গোলাপ জল। সারাদিন সতেজ থাকতে এই গোসল দারুণ কাজ দেয়।

...

ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ-মিথুন মল্লিক।

ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ। তবে এই বছরের ঈদ আমাদের জীবনে একটু ব্যতিক্রম। কোভিট-১৯ এ এই ক্রান্তিলগ্নে সারা বিশ্ববাসী এক ঝুঁকিপূর্ণ সময় পার করছে। এই ক্রান্তিলগ্নে ঈদ নিয়ে এসেছে আনন্দের সময়।

যে সকল ভাই-বোনেরা করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন, আমি তাঁদের আত্মার শান্তি কামনা করি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। আর যারা অসুস্থ অবস্থায় আছেন তাদের রোগমুক্তির জন্য পরম করুনাময়ের নিকট প্রার্থনা করি।

সামাজিক দূরত্বের সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যের মেলাবন্ধনে নিশ্চিত হোক আগামীর নিরাপত্তা ও করোনা মুক্ত নতুন সূর্যের প্রত্যাশা….
আবার আমাদের দেখা হবে একটি সুস্হ পৃথিবীতে।

​​​​ মিথুন মল্লিক, 
সাবেক সদস্য, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। 
সহ-সভাপতি, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগ।

...

সবাই ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন-রবিউল ওহাব কমল

প্রতিবছর ঈদ আসে আমাদের জীবনে আনন্দ আর সীমাহীন প্রেম প্রীতি ও কল্যাণের বার্তা নিয়ে।  তবে এবারে করোনা মহামারী এবং ঘূর্ণিঝড় আমফানের প্রকোপে চিত্রটা অবশ্যই অনেকটা আলাদা।
এই দুর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবেলায়  মাননীয় প্রধানমন্ত্রী  জননেত্রী শেখহাসিনার নেতৃত্বে  সকল কালিমা আর কলুষতাকে ধুয়ে মুছে হিংসা বিদ্বেষ ভুলে পরস্পর প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ হবো৷
সবাই ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন, সুস্থ থাকুন,  পরিবারের সদস্যদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করুন। 
পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা রইল।

রবিউল ওহাব কোমল।
ছাত্রপ্রতিনিধি, 
সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ ছাত্রলীগ, চট্রগ্রাম।

...

বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ, চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন ২০২১ স্মরণিকা উপ-পরিষদের জরুরি বিজ্ঞপ্তি।

এতদ্বারা সকলের অবগতির জন্য জানানাে যাচ্ছে যে, বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন ২০২১ উপলক্ষ্যে একটি স্মরণিকা প্রকাশ হতে যাচ্ছে। উক্ত স্মরণিকায় মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ এবং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর সভাপতি/ আহ্বায়ক /সাধারণ সম্পাদক/ যুগ্ম আহ্বায়ক সহ সকল সদস্যবৃন্দদের অনুরােধ করা যাচ্ছে যে, উক্ত স্মরণিকায় প্রবন্ধ, কবিতা দেওয়ার ইচ্ছুক হইলে আগামী ২২-২৪ মার্চ এর মধ্যে লিখিত প্রবন্ধ, কবিতা, অবশ্যই জমা দেওয়ার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

যােগাযােগঃ

১। মােঃ জাহিদুল হাসান- ০১৬৩১-৬২৩৪০৬
Email : [email protected]

২। মােঃ ইসমাইল হােসেন শুভ- ০১৬৮৩-০৭৭৬৩৩

Email : [email protected]

৩। এডভােকেট রুবেল পাল- ০১৭১৬-২৯৯১৯৬

Email: ad.robel [email protected]
শুভেচ্ছান্তেঃ

১। কাজী মোঃ হেলাল উদ্দিন

আহ্বায়ক, স্মরণিকা উপ-পরিষদ।
বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন ২০২১
মোবাইলঃ ০১৮১৮-১৯২৭৫৩

২। সামশেদ খোকন

যুগ্ম-আহবায়ক,স্মরণিকা উপ-পরিষদ।
বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ চট্টগ্রাম মহানর সম্মেলন ২০২১
মােবাইলঃ ০১৮১৭-২০৪৭৯৭

৩। ওসমান গণি মানিক

সদস্য সচিব, স্মরণিকা উপ-পরিষদ।
বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন ২০২১
মোবাইলঃ ০১৮০৯-৯৮৮১১১

বিঃ দ্রঃ প্রবন্ধ সংক্ষিপ্ত আকারে লিখুন।


ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ-মিথুন মল্লিক।

ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ। তবে এই বছরের ঈদ আমাদের জীবনে একটু ব্যতিক্রম। কোভিট-১৯ এ এই ক্রান্তিলগ্নে সারা বিশ্ববাসী এক ঝুঁকিপূর্ণ সময় পার করছে। এই ক্রান্তিলগ্নে ঈদ নিয়ে এসেছে আনন্দের সময়।

যে সকল ভাই-বোনেরা করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন, আমি তাঁদের আত্মার শান্তি কামনা করি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। আর যারা অসুস্থ অবস্থায় আছেন তাদের রোগমুক্তির জন্য পরম করুনাময়ের নিকট প্রার্থনা করি।

সামাজিক দূরত্বের সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যের মেলাবন্ধনে নিশ্চিত হোক আগামীর নিরাপত্তা ও করোনা মুক্ত নতুন সূর্যের প্রত্যাশা….
আবার আমাদের দেখা হবে একটি সুস্হ পৃথিবীতে।

​​​​ মিথুন মল্লিক, 
সাবেক সদস্য, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। 
সহ-সভাপতি, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগ।

২৩ মার্চ: ইতিহাসের এই দিনে যা ঘটেছিল

আজ ২৩ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার। একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনদের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১৩৫১ - ফিরোজ শাহ তুঘলকের দিল্লির সিংহাসনে আরোহন।

১৬৫২ - হল্যান্ডের নৌবাহিনীর ওপর প্রচণ্ড হামলা শুরু করে।

১৭৫৭ - রবার্ট ক্লাইভের চন্দননগর দখল।

১৭৯৩ - চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত ব্যবস্থা ঘোষিত হয়।

১৮০১ - রাশিয়ার জার প্রথম পল নিহত।

১৯১৭ - ভাইসরয় লর্ড চেমস ফোর্ড কর্তৃক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ঘোষণা।

১৯১৮ - জামার্ন বাহিনী তাদের নবনির্মিত কামানের সাহায্যে প্যারিসের ওপর গোলাবর্ষণ করে।

১৯১৮ - লিথুনিয়া স্বাধীনতা ঘোষণা করে।

১৯২০ - গভর্নর জেনারেল কর্তৃক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুমোদন।

১৯৩৩ - এ্যাডলফ হিটলার জার্মানির একনায়ক হন।

১৯৪০ - ঐতিহাসিক লাহোর প্রস্তাব উত্থাপন।

১৯৫৬ - পাকিস্তানের প্রথম সংবিধান গ্রহণ করা হয়।

১৯৭৬ - নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার সংক্রান্ত (মানবাধিকার) আন্তর্জাতিক চুক্তি কার্যকর।

১৯৯৮ - রুশ প্রেসিডেন্ট বরিস ইয়েলৎসিন কর্তৃক আকস্মিকভাবে তার মন্ত্রিসভা বরখাস্ত।

জন্ম:

১৮৯২ - সাহিত্য সমালোচক শ্রীকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় জন্মগ্রহণ করেন।

১৯০০ - জার্মান মনোবিজ্ঞানী এরিখ ফ্রোমের জন্মগ্রহণ করেন।

১৯১০ - জাপানি চলচ্চিত্রকার আকিরা কুরোসোওয়ার জন্মগ্রহণ করেন।

১৯০৭ - নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইস বংশোদ্ভূত ইতালীয় ফার্মাকোলজিস্ট ড্যানিয়েল বভেট জন্মগ্রহণ করেন।

১৯১০ - জাপানী চলচ্চিত্র পরিচালক আকিরা কুরোসাওয়া জন্মগ্রহণ করেন ।

১৯২২ - ইতালিয়ান অভিনেতা, পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার উগো টোগনাযি জন্মগ্রহণ করেন ।

১৯৩১ - রাশিয়ান দাবাড়ু ও লেখক ভিক্টর কোরচনোই জন্মগ্রহণ করেন ।

১৯৪২ - অস্ট্রিয়ান পরিচালক, প্রযোজক ও চিত্রনাট্যকার মাইকেল হানেকে জন্মগ্রহণ করেন ।

১৯৫৬ - পর্তুগিজ শিক্ষাবিদ, রাজনীতিবিদ ও ১১৫ তম প্রধানমন্ত্রী হোসে ম্যানুয়েল বারোসো জন্মগ্রহণ করেন ।

১৯৬৮ - ইংরেজ সাবেক ক্রিকেটার ও সাংবাদিক ফার্নান্দো রুইজ হিয়েরো জন্মগ্রহণ করেন ।

১৯৭৩ - পোলিশ ফুটবলার জেরযয় ডুডেক জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৭৬ - ভারতীয় অভিনেত্রী, প্রযোজক, রাজনীতিবিদ ও মানবসম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী স্মৃতি ইরানি জন্মগ্রহণ করেন ।
১৯৭৮ - আর্জেন্টিনার ফুটবল ওয়াল্টার স্যামুয়েল জন্মগ্রহণ করেন।

মৃত্যু:

১৮০১ - রাশিয়ার জার প্রথম পল নিহত হন।

১৮৪২ - ফরাসি ঔপন্যাসিক স্তাঁদালের মৃত্যু।

১৯৪৮ - বৌদ্ধধর্ম ও দর্শনশাস্ত্রের বিশেষজ্ঞ বেনী মাধক বড়ুয়ার মৃত্যু।

১৯১০ - নাডার, ফরাসি ফটোগ্রাফার, সাংবাদিক ও লেখক মৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৩১ - ভগৎ সিং, প্রসিদ্ধ বিপ্লবী শহীদ মৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৩৫ - ফ্লোরেন্স মুর, আমেরিকান অভিনেত্রী মৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৪৮ - বৌদ্ধধর্ম ও দর্শন শাস্ত্রের বিশেষজ্ঞ বেনী মাধক বড়ুয়া মৃত্যুবরণ করেন

১৯৫৩ - ফরাসি চিত্রশিল্পী ও অঙ্কনশিল্পী রাউল ডুফয় মৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৯২ - নোবেল পুরস্কার বিজয়ী অস্ট্রিয়ান অর্থনীতিবিদ ফ্রিডরিশ ফন হায়ক মৃত্যুবরণ করেন ।

১৯৯৫ - কবি শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যু মৃত্যুবরণ করেন ।

২০০৭ - আমেরিকান গণিতবিদ ও তাত্ত্বিক পল জোসেফ কোহেন মৃত্যুবরণ করেন ।

২০১১ - ইংল্যাণ্ডে জন্মগ্রহণকারী ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত মার্কিন চলচ্চিত্রাভিনেত্রী এলিজাবেথ টেলর মৃত্যুবরণ করেন ।

২০১২ - সোমালিয়ার রাজনীতিবিদ ও প্রেসিডেন্ট আব্দুলাহি ইউসুফ আহমেদ মৃত্যুবরণ করেন ।

২০১৪ - স্প্যানিশ আইনজীবী, রাজনীতিবিদ ও প্রথম প্রধানমন্ত্রী অ্যাডলফ সুয়ারেজ মৃত্যুবরণ করেন ।

২০১৫ - আধুনিক সিঙ্গাপুরের জনক লি কুয়ান ইউ মৃত্যুবরণ করেন ৷

দিবস:

আজ বিশ্ব আবহাওয়া দিবস।